প্রচ্ছদ > সিলেট প্রতিক্ষণ > সুনামগঞ্জে সয়াবিন সংকটের মাঝেই বেড়েছে পেঁয়াজের দাম

সুনামগঞ্জে সয়াবিন সংকটের মাঝেই বেড়েছে পেঁয়াজের দাম

সিলেট প্রতিক্ষণ সিলেট শীর্ষ সুনামগঞ্জ

সময়ের ডাক:সুনামগঞ্জে খুচরা বাজারে সপ্তাহের ব্যবধানে কেজিতে ১০ থেকে ১৫ টাকা বেড়েছে পেঁয়াজের দাম। এখনও অস্থিরতা কাটেনি সয়াবিন তেলের দামেও। সয়াবিন তেলের সংকটের মধ্যেই বেড়েছে পেঁয়াজের ঝাঁজ।

ক্রেতারা জানান, মাত্র তিন চার দিনের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে কেজিতে ১০ থেকে ১৫ টাকা। পেঁয়াজের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে আলু ও ডিমের দাম। হঠাৎ নিত্যপ্রয়োজনীয় এ পণ্যগুলোর দাম বাড়ায় চরম অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ভোক্তারা।

খুচরা ব্যবসায়ীরা বলেছেন, আড়ৎ থেকে আমরা বেশি দামে কিনেছি, তাই বেশি দামে বিক্রি করছি। দাম কেন বাড়ল তারাই জানেন।

আড়ৎদাররা বলেছেন, আগের থেকে পেঁয়াজের কিছুটা দাম বেড়েছে। স্থলবন্দরের আশপাশের ব্যবসায়ীরা পেঁয়াজ মজুত করে বেশি দামে বিক্রি করছেন, পাশাপাশি সরকার নতুন করে পেঁয়াজ ইমপোর্ট পারমিট (আইপি) না দেয়ায় দাম বাড়ছে বলে জানান তারা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, জেলা শহরসহ উপজেলা শহরের বাজার ও হাটবাজারে পেঁয়াজের দাম সপ্তাহের ব্যবধানে কয়েকদিনের ব্যবধানে ১০-১৫ টাকা বেড়েছে। সপ্তাহের শুরুতে যে পেঁয়াজের দাম ছিল কেজিতে ২৫ থেকে ৩০ টাকা, গতকাল তা বিক্রি হয়েছে ৩৫ থেকে ৪০ টাকা। খুচরা বাজারে কেজি প্রতি ৪৫ টাকা বিক্রি করারও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সরেজমিনে সুনামগঞ্জ শহরের ট্রাফিক পয়েন্টের হৃদি স্টোর, রহমান স্টোর, গৌরাঙ্গ স্টোরে ৩৮ টাকা কেজিতে পেঁয়াজ বিক্রি করা হচ্ছে। মধ্যবাজার ও কিচেন মার্কেট এলাকায় ৪০-৪২ টাকায় বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজের কেজি। জেল রোড এলাকায় কোথাও ৩৫, কোথাও ৩৮ আবার কোথাও ৪০ টাকায় দরে পেঁয়াজ হচ্ছে। এছাড়াও বিভিন্ন উপজেলার গ্রামীণ বাজারে ৪২-৪৫ টাকা দরে পেঁয়াঁজ বিক্রির খবর জানা গেছে। পেঁয়াজের দামের এমন তারতম্যে অস্থিরতা বিজার করছে নিত্যপণ্যের বাজারে। ভোগ্যপণ্যের এমন লাগামহীন দৌঁড়ে অস্তুষ প্রকাশ করেছেন সাধারণ ভোক্তারা। সরকারের তরফ থেকে এখনই লাগাম টেনে না ধরলে সাধারণের ভোগান্তি চরমে পৌঁছবে বলে মনে করেন সাধারণ মানুষ।

রাগিব আলী নামে এক ক্রেতা বলেন, যেভাবে সব পণ্যের দাম বাড়ছে সাধারণ মানুষ কোথায় যাবে। কাল তেলের দাম আজ পেঁয়াজের দাম, পরশু অন্য পণ্যের তাম বাড়ছে। এভাবে জিনিস পত্রের দাম বাড়লে মানুষকে না খেয়ে মরতে হবে।

রশীদ আহমদ নামে আরেক ক্রেতা বলেন, সরকারকে উচিত বাজার নিয়ন্ত্রণ করা। না হলে মানুষের মধ্যে জন অন্তুষ দেখা দিবে।

এদিকে নিত্য পণ্যের বাজার মনিটরিং ও দ্রব্যমূল্যের বাজার নিয়ন্ত্রণে প্রশাসনের পক্ষ থেকে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। শনিবার দুপুরে সুনামগঞ্জ শহরে পশ্চিম বাজার এলাকায় অভিযান পরিচালিত হয়।

দ্রব্যমূল্যের বাজার নিয়ন্ত্রণে ব্যাপারে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারি পরিচালক শফিকুল ইসলাম সিলেটভিউ’কে বলেন, আমার প্রতিদিনই কোথাও না কোথাও অভিযান পরিচালনা করছি।

অভিযোগ পেলে অভিযান পরিচালনা করে ব্যবস্থা গ্রহণ করার কথা জানান তিনি।