প্রচ্ছদ > জাতীয় > ভারতের ঝুঁকির তালিকা থেকে বাদ বাংলাদেশ

ভারতের ঝুঁকির তালিকা থেকে বাদ বাংলাদেশ

জাতীয়

সময়ের ডাক
দক্ষিণ আফ্রিকায় শনাক্ত করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ‘ওমিক্রন’ সংক্রান্ত উচ্চ ঝুঁকির দেশের তালিকা থেকে বাংলাদেশকে বাদ দিয়েছে ভারত। মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) ভারতের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের হালনাগাদ তালিকায় এ তথ্য জানানো হয়। হালনাগাদ তালিকাটি মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে।

ওমিক্রন নিয়ে বিশ্বজুড়ে উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষাপটে ভারত উচ্চ ঝুঁকির ১২টি দেশের তালিকা করেছিল। সেই তালিকায় বাংলাদেশকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল। কিন্তু ৩০ নভেম্বর প্রকাশিত হালনাগাদ তালিকায় বাংলাদেশের নাম বাদ দেয় ভারত।

হালনাগাদ তালিকায় ১১টি দেশকে উচ্চ ঝুঁকির তালিকায় রেখেছে ভারত। দেশগুলো হলো- যুক্তরাজ্য, দক্ষিণ আফ্রিকা, ব্রাজিল, বতসোয়ানা, চীন, মরিশাস, নিউজিল্যান্ড, জিম্বাবুয়ে, সিঙ্গাপুর, হংকং ও ইসরায়েল।

উচ্চ ঝুঁকির তালিকায় থাকা দেশগুলো থেকে ভারতে যাওয়া নাগরিকদের নয়াদিল্লির আইজিআই বিমানবন্দরে করোনার আরটি-পিসিআর পরীক্ষা করা হচ্ছে।

উচ্চ ঝুঁকির তালিকায় থাকা দেশের মধ্যে ওমিক্রন সংক্রমণের ‘হটস্পট’ (কেন্দ্র) দক্ষিণ আফ্রিকা, জিম্বাবুয়ে ও হংকং থেকে ভারতে আসা উড়োজাহাজের যাত্রীদের নয়াদিল্লির বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষার ফলাফল পাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। পরীক্ষায় নেগেটিভ ফলাফল আসা ব্যক্তিরাই কেবল বিমানবন্দর থেকে গন্তব্যে যাওয়ার অনুমতি পাবেন।

বাকি দেশগুলো থেকে আসা ব্যক্তিরা করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দিয়ে বিমানবন্দর ত্যাগ করার অনুমতি পাবেন। পরে তাদের ফলাফল জানিয়ে দেওয়া হবে। ফলাফল পজিটিভ বা নেগেটিভ হলে তাদের বিষয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।