প্রচ্ছদ > সিলেট প্রতিক্ষণ > আরিফুল হক ‘ভাঙা মেয়র’!

আরিফুল হক ‘ভাঙা মেয়র’!

সিলেট প্রতিক্ষণ সিলেট শীর্ষ

সময়ের ডাক
পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও সিলেট-১ আসনের এমপি ড. একে আব্দুল মোমেন বলেছেন, সিলেটকে আলোকিত শহর হিসেবে গড়ে তুলতে সবাইকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে কাজ করতে হবে। ইচ্ছা থাকলে উপায় হয়। মেয়র ও আমরা সিলেট নগরীকে গুণগতভাবে সমৃদ্ধ ও আলোকিত নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে চাই।

তিনি বলেন, আমাদের সবাইকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে চেষ্টা করতে হবে, তাহলে আল্লাহ সাহায্য করবেন। উন্নয়ন কাজের জন্যে এতো ভাঙাচোরা হয়েছে, এখন আমাদের মেয়রের নাম হয়ে গেছে ‘ভাঙা মেয়র’। সিলেটবাসী রাস্তাঘাট সম্প্রসারণের জন্যে তাদের মূল্যবান জমি দান করেছেন এটা হচ্ছে সদকায়ে জারিয়া।

মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) নগরীর নির্মাণকাজ শেষ হওয়া শাহজালাল উপশহরের এ ব্লকের একটি আরসিসি ড্রেন পরিদর্শন করতে গিয়ে এসব কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, সিসিকের ২২ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অ্যাডভোকেট ছালেহ আহমদ সেলিম, উপশহর ই ব্লক জামে মসজিদের সভাপতি সফিকুর রহমান, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা হাজী এনাম উদ্দিন, এ ব্লক জামে মসজিদের সভাপতি সহিবুর রহমান কলা, সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি কামাল উদ্দিন, গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য জাফরান জামিল, আওয়ামী লীগ নেতা এম,এ ফয়সাল ছাদ, বাহার উদ্দিন, জয়নুল হক, সিরাজুল ইসলাম খান, আবু বক্কর সিদ্দিক বাবলু, বিশিষ্ট সমাজসেবক তৌফিকুর ইসলাম বাবলু, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা কবির চৌধুরী রাসেল, সিলেট মহানগর যুবলীগ নেতা হুমায়ুন রশিদ সুমন, মোতাহার আহমদ জাহির, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন জাহাঙ্গীর, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা সাহেদ আহমদ সাহেদ, সাহেদ আহমদ পলাশ, ২২নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক চঞ্চল চৌধুরী, শ্রমিকলীগের সভাপতি এরশাদ মিয়া, ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা সিদ্দিকুর রহমান, সাহেদ আহমদ শামিম, ফুয়াদ বকশী, সিলেট মহানগর ছাত্রলীগ নেতা কাজী জুবায়ের আহমদ, তারেক, জয়, নাজমুল, আসিফ, ফাহিম, শাওন ও আরিফ প্রমুখ।

এদিকে জানা গেছে, উপশহরস্থ এ ব্লকের ওই ড্রেন নির্মাণের কাজ মেয়াদের আগেই শেষ হয়েছে। এতে ব্যয় হয়েছে ৭ কোটি ৬১ লাখ টাকা। চলতি বছরের ১৫ জুন শুরু হওয়া উন্নয়ন কাজটি আগামী ৩০ ডিসেম্বর শেষ হওয়ার কথা ছিলো। দ্রুত কাজ শেষ হওয়ায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও স্থানীয় কাউন্সিলর সেলিমের প্রশংসা করেন।