এমপি সামাদের মৃত্যুতে কাতারে বিভিন্ন মহলের শোক

সময়ের ডাক : দুটি পাতা একটি কুঁড়ি’র দেশ, হযরত শাহ জালাল (র) ও হযরত শাহ পরান (র) এর স্মৃতি বিজড়িত পূণ্যভূমি সিলেটে অবস্থিত বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ হাওর হাকালুকি ও কুশিয়ারা নদীর তীরে’র ঐতিহ্যবাহী ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার কৃতি সন্তান, বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের অধিকারী, প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ, গণমানুষের নেতা সদ্য প্রয়াত সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও সিলেট ৩ সংসদীয় আসনের সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ কয়েস চৌধুরীর মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়েছেন কাতারস্থ বাংলাদেশ কমিউনিটির বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

শোক প্রকাশকারী নেতৃবৃন্দরা হলেন- ফেঞ্চুগঞ্জ কল্যাণ সমিতি কাতারের সভাপতি আব্দুল খালিক, সহ সভাপতি হাবিবুল ইসলাম এনাম, শেখ সাইকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম শাহীন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক  ইব্রাহিম মোহাম্মদ হাকিম, জালালাবাদ এসোসিয়েশন কাতার এর সভাপতি মোঃ কপিল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মাহবুবর রহমান চৌধুরী বাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু তাহের চৌধুরী, চট্টগ্রাম সমিতি কাতার এর সাধারণ সম্পাদক নুর মোহাম্মদ, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কাতার শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মালেক আহমদ, যুবলীগ কাতার শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ, বৃহত্তর সিলেট আওয়ামী যুব পরিবার কাতার এর সভাপতি শুয়াইব আহমদ, সহ সভাপতি বাবু দিপক মল্লিক, সোহেল আহমদ,জুবায়ের হোসাইন জাইন, জাকির হোসেন চৌধুরী, বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ কাতার এর সভাপতি আশরাফ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবদুল আহাদ চৌধুরী, কাতার বাংলা প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম এ সালাম, রাজনগর প্রবাসী কল্যাণ সমিতির সভাপতি আবিদুর রহমান ফারুক সহ আরও অনেকে।

শোক বার্তায় তাঁরা বলেন, মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী
একজন আন্তরিক সংসদ সদস্য ছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে সিলেটবাসীসহ জাতি একজন বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ ও সমাজসেবককে হারিয়েছে। একজন প্রবীণ রাজনীতিবিদ  হিসেবে তিনি ছিলেন সকলের শ্রদ্ধার পাত্র। তাঁর বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবন, রাজনৈতিক আদর্শ ও বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের জন্য সিলেটের জনগণ তাকে চিরদিন স্বরণ রাখবে।

তাঁরা মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।