সিলেটে প্রতিষ্ঠান খোলার দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

সময়ের ডাক : স্থগিত হওয়া জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়য়ের পরীক্ষা শুরু করা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার দাবিতে সিলেটে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১২ টার দিকে শিক্ষার্থীরা চৌহাট্টা মোড় অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেন। পরে প্রায় দুই ঘণ্টা বিক্ষোভের পর পৌনে ২ টার দিকে তারা সিলেটের জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদানের জন্য রওয়ানা হন।

এময় শিক্ষার্থীরা জানান, ‘দেশের সর্বক্ষেত্রে যখন মানুষ স্বাভাবিক জীবনযাপন করছেন তখন করোনার দোহাই দিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে শিক্ষার্থীদের জীবনে অভিশাপ নিয়ে আসা হচ্ছে। একই সাথে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়য়ের অনার্স চূড়ান্ত বর্ষের এবং মাস্টার্স চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষা বাতিল করে শিক্ষার্থীদের জীবন নষ্ট করা হচ্ছে। এছাড়াও অটোপাস পদ্ধতি বা অনলাইন ক্লাস মাধ্যম তারা চান না বলেও জানান।’

‘শিক্ষা ব্যবস্থায় এমন স্থবিরতা শিক্ষার্থীদের মনে হতাশা এবং ভবিষ্যৎ নিয়ে দুশ্চিন্তার জন্ম দিয়েছে বলেও জানান তারা। এমনকি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়য়ের অধিভুক্ত ৭ টি কলেজকে আলাদা ভাবে মূল্যায়ন শিক্ষা ব্যবস্থায় বৈষম্য বলেও উল্লেখ করেন শিক্ষার্থীরা।’

 

শিক্ষার্থীদের আন্দোলন চলাকালে চৌহাট্টায় উপস্থিত হয়ে বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থীদের সাথে আলোচনা করেন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) আজবাহার আলি শেখ। এসময় বিক্ষোভ সরিয়ে সড়কে চলাচল স্বাভাবিক করার অনুরোধ জানালে শিক্ষার্থীরা কিছুসময়ের মধ্যেই অবরোধ সরিয়ে নিয়ে শ্লোগানসহকারে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের দিকে যাত্রা শুরু করেন।

বিক্ষোভে অংশ নেন সিলেটের কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের প্রায় ৫ শতাধিক শিক্ষার্থী। শিক্ষার্থীদের অবরোধ চলাকালে গাড়ি চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তৈরি হয় গাড়ির দীর্ঘ সারি। তবে বিক্ষোভ চলাকালে কোন ধরণের বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়নি। এসময় প্রশাসনের পক্ষ সতর্ক অবস্থান নেওয়া হয়।