আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে মনিপুরী শিক্ষার্থীদের মধ্যে পাঠ্যপুস্তক ও শিক্ষা উপকরণ বিতরণ

সময়ের ডাক : আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা এথনিক কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট  অর্গানাইজেশন (একডো) এর উদ্যোগে আজ মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর বাজারে অবস্থিত মনিপুরী কালচারেল কমপ্লেক্সে এক আলোচনা সভা ও শিক্ষা উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

একডো’র চেয়ারপার্সন ইন্দ্রজিত সিংহের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ আলোচনা সভা ও শিক্ষা উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মনিপুরী কালচারেল কমপ্লেক্স এর আহবায়ক জয়ন্ত সিংহ, বাংলাদেশ মনিপুরী সাহিত্য সংসদ কমলগঞ্জ শাখার সভাপতি মি. বীরেন্দ্র সিংহ, বাংলাদেশ মনিপুরী প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি কুঞ্জরানী সিনহা। তাছাড়া সভায় বক্তব্য রাখেন কবি হামোম সনাতন, মনিপুরী ভাষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থার সম্পাদক ইবুংহাল সিংহ শ্যামল এবং শিক্ষক বৃন্দারানী দেবী। সভায় বক্তারা বাংলাদেশে বসবাসরত মনিপুরীসহ সকল নৃতাত্তিক জনগোষ্ঠীর শিশুদের নিজ নিজ মাতৃভাষায় প্রাথমিক নিশ্চিত করার জোর দাবি জানান। বক্তারা আরো বলেন বর্তমানে মনিপুরী শিশুরা বেসরকারি প্রতিষ্ঠান একডোসহ কিছু সামাজিক প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতায় মনিপুরী ভাষা ও লিপি শিখার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু এই কাজের স্থায়িত্ব রূপ নিশ্চিত করার জন্য সরকারি উদ্যোগের কোন বিকল্প নেই। তাই তাঁরা পুরোপুরীভাবে জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০ দ্রুত বাস্তবায়নেরও জোর দাবি জানান। তাছাড়া বর্তমানে মনিপুরী ভাষা সম্পর্কে প্রাথমিক পর্যায়ের পাঠ্যপুস্তকসহ জনমনে যে বিভ্রান্তি তৈরী হচ্ছে তারও দ্রুত দুর করার দাবি জানানো হয়।

প্রকল্প সমন্বয়কারী মুর্শিদা রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভার শুরুতে মনিুপরী ভাষায় জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের পর স্বাগত বক্তব্য রাখেন একডো’র নির্বাহী পরিচালক লক্ষ্মীকান্ত সিংহ। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, একডো বিগত ২০১৫ সাল থেকে নরওয়ের একটি আন্তর্জাতিক সংস্থার সহযোগিতায় কমলগঞ্জ উপজেলার মঙ্গলপুর ও মাঝেরগাঁও এ দু’টি মনিপুরী গ্রামে দু’টি মনিপুরী ল্যাংগুয়েজ সেন্টার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে সেখানকার প্রাথমিক পর্যায়ে অধ্যয়নরত মনিপুরী শিশুদের মনিপুরী ভাষা ও লিপি প্রশিক্ষণ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। এ জন্য একডো ‘মনিপুরী লোনদাম লাইরিক-চ্যাপ্টার ওয়ান’ ‘মনিপুরী লোনদাম লাইরিক-চ্যাপ্টার টু’ ‘মনিপুরী লোনদাম লাইরিক-চ্যাপ্টার থ্রি’ নামে নামে তিনটি ভিন্ন ভিন্ন মনিপুরী পাঠ্যপুস্তক প্রনয়ণ করে এ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। আলোচনা সভা শেষে অতিথিগণ প্রাথমিক পর্যায়ের বিভিন্ন শ্রেণীতে অধ্যয়নরত উপস্থিত মোট একশত চারজন শিশুদের হাতে মনিপুরী ভাষায় রচিত পাঠ্যবই, খাতা, কলম, পেন্সিল, রুলার, ইরেজার, পেন্সিল কাটার ইত্যাদি শিক্ষা উপকরণ তুলে দেন।