সিলেটে ট্রাফিক পুলিশের ৪র্থ দিনের অভিযান: ৭২টি গাড়ি আটক, ৩৩ মামলা

সময়ের ডাক:সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানোর ও সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে নগরীতে চলছে সিলেট মহানগর পুলিশের (এসএমপি) ট্রাফিক বিভাগের অভিযান। চতুর্থ দিনের অভিযানে ৭২টি যানবাহন আটক ও ৩৩ টি প্রসিকিউশন দাখিল। এর মধ্যে ১৫টি নিবন্ধন সিএনজি অটোরিকশা, ৩১টি রেজিস্ট্রেশন বিহীন ও কাগজপত্র বিহীন সিএনজি এবং ১৮টি মোটরসাইকেল, ২টি প্রাইভেট কার, ৬টি নিষিদ্ধ ঘোষিত যানবাহনসহ মোট ৭৮টি গাড়ি ডাম্পিং করা হয়।

সোমবার (১৬ নভেম্বর) অভিযানের চতুর্থ দিনেও মহানগরীতে আটটি চেকপোস্টের মাধ্যমে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করছে। সুবিদবাজার পয়েন্ট, তেমুখি বাইপাস, লাক্কাতুরা বাজার, চন্ড্রিপুল পয়েন্ট, আলমপুর, প্যারাইরচক, সুরমা বাইপাস, টিলাগড় পয়েন্টে বিশেষ চেকপোস্ট বসানো হয়। রেজিস্ট্রেশন বিহীন যানবাহন আটক, মোটরসাইকেলে তিনজন আরোহী ও হেলমেট বিহীন মোটরসাইকেল চালকদের বিরুদ্ধে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

ট্রাফিক বিভাগ জানায়, এসএমপি ট্রাফিক বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার ফয়সল মাহমুদ মহোদয়ের সার্বিক তত্ত্বাবধানে, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) জ্যোতির্ময় সরকারের নেতৃত্বে দুটি সেক্টরে ভাগ করা হয়। প্রতিটি সেক্টরে ৪টি করে মোট আটটি তল্লাশি চৌকি বসিয়ে অবৈধ যানবাহন, রেজিস্ট্রেশন বিহীন যানবাহনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। এক নং সেক্টরের অধীনে চারটি চেকপোস্ট হল, তেমুখী বাইপাস, লাক্কাতুরা বাজার, আম্বরখানা ও শেখঘাট যার ইনচার্জ হিসেবে রয়েছেন সহকারী পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক-উত্তর) আবুল খয়ের। দুই নং সেক্টরের অধীনে চারটি চেকপোস্ট হল, চন্ডিপুল, প্যারাইরচক, আলমপুর ও সুরমা বাইপাস। যার নেতৃত্বে রয়েছেন সহকারী পুলিশ কমিশনার(ট্রাফিক-দক্ষিণ) আশিদুর রহমান।

আটটি চেকপোস্ট পরিচালনার মাধ্যমে নিষিদ্ধ যানবাহন, রেজিস্ট্রেশন বিহীন যানবাহন, ফিটনেস বিহীন যানবাহন, মোটরসাইকেলে ত্রিপল রাইডার, হেলমেট বিহীন মোটরসাইকেল চালকদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে ১৫ টি নিবন্ধন সিএনজি অটোরিকশা, ৩১ টি রেজিস্ট্রেশন বিহীন ও কাগজপত্র বিহীন সিএনজি এবং ১৮ টি মোটরসাইকেল, ২ টি প্রাইভেট কার, ৬ টি নিষিদ্ধ ঘোষিত যানবাহনসহ সর্বমোট ৭৮ টি গাড়ি ডাম্পিং করে পুলিশ লাইন্স প্রেরণ করা হয়। এছাড়াও ত্রিপল রাইডার ও হেলমেট বিহীন মোটরসাইকেল চালকদের বিরুদ্ধে সড়ক পরিবহন আইনে প্রসিকিউশন দাখিল করা হয়।

ট্রাফিক বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানান, গত ১১, ১২, ১৫ ও ১৬ তারিখে মোট ১৫১ টি রেজিস্ট্রেশন বিহীন সিএনজি অটোরিকশাসহ ৩৫২ টি যানবাহন আটক করা হয়েছে। নিয়মিত ডিউটির পাশাপাশি চেকপোস্টের মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন বিহীন যানবাহন, নিষিদ্ধ ঘোষিত যানবাহন, হেলমেট বিহীন মোটরসাইকেল চালক ও মোটরসাইকেলে তিনজন আরোহীদের বিরুদ্ধে অভিযান আরও জোরদার করা হবে। নগরবাসীকে সড়ক পরিবহন আইন মেনে চলার জন্য মাইকিংয়ের মাধ্যমে সচেতন করা হচ্ছে।