রায়হানের মাকে পুলিশ সুপারের উপহার

সময়ের ডাক :পুলিশ ফাঁড়িতে নির্যাতনে নিহত রায়হান আহমদের মা সালমা বেগমকে ৫০ হাজার টাকার চেক ও উপহার প্রদান করেছেন সিলেটের পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন আহমদ।

রোববার (১৫ নভেম্বর) সকালে রায়হানের মায়ের হাতে চেক ও উপহার তুলে দেন তিনি। এরআগে সালমা বেগমসহ রায়হানের পরিবারের সদস্যরা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে তার সাথে দেখা করতে যান।

পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন আহমদ জানান, রোববার সকালে নিহত রায়হানের মাসহ পরিবারের লোকজন সৌজন্য সাক্ষাত করতে আসেন। এসময় জেলা পুলিশের বিচক্ষনতায় দ্রুত সময়ে আকবরকে গ্রেপ্তার করায় তারা কৃতজ্ঞতা জানান। পরে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে নিহত রায়হানের পরিবারকে পঞ্চাশ হাজার টাকার চেক ও উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়।

প্রসঙ্গত, ১০ অক্টোবর মধ্যরাতে রাতে শেখ সাইদুর রহমান বন্দরবাজার এলাকার একটি রেস্টুরেন্টে থাকা কয়েকজন পুলিশ সদস্যকে জানান তিনি কাষ্টঘর এলাকায় ছিনতাইয়ের শিকার হয়েছেন। তার অভিযোগ পেয়ে রাত আড়াইটার দিকে কাষ্টঘর থেকে রায়হানকে তুলে নিয়ে আসে পুলিশ। এরপর তাকে পুলিশ ফাঁড়িতে এনে নির্যাতন চালানো হয়।

পরে ১১ অক্টোবর সকাল ৬টা ৪০ মিনিটে নগরীর নেহারিপাড়া মৃত রফিকুল ইসলামের ছেলে রায়হান আহমদকে গুরুতর আহত অবস্থায় ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন বন্দরবাজার ফাঁড়ির এএসআই আশেকে এলাহী। সকাল ৭টা ৫০ মিনিটে হাসপাতালে মারা যান রায়হান।

এ ঘটনায় রায়হানের স্ত্রী হত্যা ও হেফাজতে মৃত্যু নিবারণ আইনে থানায় মামলা দায়ের করেন। এরপর বন্দর বাজার ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আকবরসহ চার পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত ও তিন জনকে প্রত্যাহার করা হয়।