প্রচ্ছদ > আন্তর্জাতিক > নিউ ইয়র্কের ফিউনেরাল হোমে লাশ রাখার জায়গা নেই, ট্রাকেই পচছে

নিউ ইয়র্কের ফিউনেরাল হোমে লাশ রাখার জায়গা নেই, ট্রাকেই পচছে

আন্তর্জাতিক

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:সারা বিশ্বে করোনার মোট আক্রান্তের এক তৃতীয়াংশ যুক্তরাষ্ট্রে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও নিহতের সংখ্যা নিউ ইয়র্ক শহরেই বেশি। শহরটির ফিউনেরাল হোমগুলোতে লাশ আর লাশ। কোথাও যেন তিল ধারণের ঠাই নেই।
বুধবার ব্রুকলিনের ইউটিকা অ্যাভেনিউর এ্যান্ড্রু টি ক্লেকলি ফিউনারেল হোমের সামনে রাখা ট্রাক দুটি ট্রাকের ভেতর পচতে থাকা কয়েক ডজন লাশ পাওয়া গেছে।

ধারণা করা হচ্ছে, ফিউনেরাল হোমটির লাশ রাখার হিমাগার অচল হয়ে পড়ায় এ মৃতদেহগুলো ট্রাক দুটোর ভেতরে রাখা হয়েছিল। তীব্র দুর্গন্ধ বের হওয়ার পর খবর পেয়ে পুলিশ এসে ট্রাক খুলে শবদেহ রাখার ব্যাগে মোড়ানো (বডি ব্যাগ) লাশগুলো পায়।

বডি ব্যাগে ভেতর রাখা লাশগুলোর মধ্যে কতটি কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত ব্যক্তির তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

কোভিড-১৯ এর কারণে গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই নিউ ইয়র্কের বিভিন্ন হাসপাতালের মর্গ, কবরস্থান, শ্মশান ও শহর কর্তৃপক্ষ পরিচালিত মর্গগুলোর ওপর ভয়াবহ চাপ পড়ছে বলে জানিয়েছে নিউ ইয়র্ক টাইমস।

মৃতদেহ সৎকার সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন খাতের কর্মীদের মোকাবেলা করতে হচ্ছে শতবর্ষ পুরনো স্প্যানিশ ফ্লুর পর আঘাত হানা সবচেয়ে ভয়াবহ মহামারীকে।

আগে থেকে নির্ধারিত অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার পাশাপাশি হাসপাতাল ও বিভিন্ন নার্সিং হোম থেকে আসা বিপুল মৃতদেহের কারণে এখন ফিউনেরাল হোমের পরিচালকদেরই সবচেয়ে বেশি চাপ সামলাতে হচ্ছে।

সংক্রমণ এড়াতে দাফন বা চুল্লিতে পোড়ানোর আগে শবদেহ উপযুক্ত পরিবেশে রাখার ব্যাপারে কর্তৃপক্ষের কড়া নির্দেশনা আছে।

পরিস্থিতি মোকাবেলায় অনেক ফিউনেরাল হোম তাদের শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ট্রেইলারগুলো ব্যবহার করতে পারলেও কাউকে কাউকে চ্যাপেলেই অস্থায়ী শবঘর বানাতে হয়েছে, ঘরগুলোকে শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ যন্ত্রের সাহায্যে লাশ সংরক্ষণের উপযুক্ত রাখতে হচ্ছে।