প্রচ্ছদ > আন্তর্জাতিক > দীপিকার সমর্থনে যা বললেন শিবসেনা নেতা সঞ্জয়

দীপিকার সমর্থনে যা বললেন শিবসেনা নেতা সঞ্জয়

আন্তর্জাতিক

 

 

সময়ের ডাক ডেস্ক: দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে (জেএনইউ) হামলার ইস্যুতে বলিউড অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোনের বক্তব্যকে সমর্থন দিয়েছেন বিজেপির সাবেক মিত্র শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত।

দীপিকার সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি ‘ছপাক’ বয়কটের বিরোধিতা করে বিজেপি সরকারের তীব্র সমালোচনা করেন এ শিবসেনা নেতা।

রোববার ভারতীয় বার্তা সংস্থা পিটিআইকে সঞ্জয় রাউত বলেন, ‘দীপিকা পাড়ুকোনকে ও তার সিনেমা বয়কটের দাবি তোলাই অন্যায়। দেশ কি তালেবান স্টাইলে চলবে নাকি? সরকারবিরোধী বক্তব্য দিলেই বয়কট হবেন- এ হতে পারে না।’

গত ৫ জানুয়ারি জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে বাম ছাত্র সংগঠনের ওপর মুখোশধারীদের হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন বলি সেলিব্রেটিরা।

অন্যদের মতো নির্যাতিত শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন দীপিকা পাড়ুকোন। ওই ঘটনায় দুর্বৃত্তদের হামলায় মাথা ফেটে আহত হন বাম ছাত্র সংগঠনের সভানেত্রী ঐশি ঘোষ।

ঘটনার দুদিন পর ঐশী ঘোষকে সহানুভূতি জানাতে আসেন দীপিকা। আক্রান্ত শিক্ষার্থীদের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দাঁড়িয়ে দীপিকা বলেন, ‘আমার ভয় করছে। দুঃখও হচ্ছে। এটি আমাদের দেশের ভিত্তি নয়। আমার প্রচণ্ড রাগ হচ্ছে যে, এ ঘটনা থামাতে পুলিশ কোনো পদক্ষেপ নেয়নি, এখনও নেয়া হচ্ছে না।’

এমন মন্তব্যের পর পর ক্ষমতাসীন বিজেপির তোপের মুখে পড়েন দীপিকা। টুইটারে দীপিকাকে বয়কটের ডাক দিয়েছেন বিজেপির মুখপাত্র তাজিন্দর সিংহ বাগ্গা। দীপিকার নতুন ছবি ‘ছপাক’-এর টিকিট বাতিলের হিড়িক পড়ে গেছে গেরুয়া শিবিরে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি থেকে শুরু করে বিজেপির মুখপাত্র সম্বিৎ পাত্রও কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন দীপিকাকে।

প্রসঙ্গত ৫ জানুয়ারি রাতে নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালায় মুখোশধারীরা। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪২ শিক্ষক-শিক্ষার্থী আহত হন। ক্ষমতাসীন বিজেপির ছাত্র সংগঠন এবিভিপিই এ হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ আনা হয়। তবে পুলিশ ও প্রশাসন ছাত্র সংসদের সভাপতি ঐশি ঘোষকে অভিযুক্ত করেছে।