প্রচ্ছদ > রাজনীতি > ফখরুলের বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় যা বললেন হাছান মাহমুদ

ফখরুলের বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় যা বললেন হাছান মাহমুদ

রাজনীতি

 

সময়ের ডাক ডেস্ক: বিএনপি পরিবারতন্ত্রের সবচেয়ে বড় দৃষ্টান্ত বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আত্মঘাতী বক্তব্য দিয়েছেন মন্তব্য করে তথ্যমন্ত্রী আরো বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন তার পরিবারের সবাইকে বিভিন্ন পদে নিয়োগ দিয়েছেন। আর আওয়ামী লীগে যারা পদ পেয়েছে তারা যোগ্যতা বলেই পেয়েছেন।

আজ রোববার সচিবালয়ে সমসাময়িক বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী।

উল্লেখ্য, আওয়ামী লীগ পরিবারতন্ত্রের রাজনীতি শুরু করেছে বলে মন্তব্য করেছিলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

সেই মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় হাছান মাহমুদ বলেন, ‘মির্জা ফখরুল ইসলাম তো নিজেই পরিবারতন্ত্রের রাজনীতি করেছেন। খালেদা জিয়া চেয়ারপারসন আর তার বড় ছেলে তারেক রহমান দলের ভাইস চেয়ারম্যান। ক্ষমতায় গিয়ে খালেদা জিয়া নিজের ভাই-বোনকে মন্ত্রী বানিয়েছিলেন। দলের গঠনতন্ত্র সংশোধন করে তার ভাই সাঈদ ইস্কান্দারকে বিশেষ সম্পাদকের পদ দেন খালেদা। বোন খুরশিদ জাহানকেও মন্ত্রী করেছেন। ’

তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আওয়ামী লীগে এমনটা দেখা যায়নি। যোগ্যতা বলে সবাই পদ পেয়েছেন, মন্ত্রী হয়েছেন।

এ সময় ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থীর যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেন, ঢাকা দক্ষিণে ইশরাক হোসেন কোন যোগ্যতায় মনোনয়ন পেয়েছেন? সাদেক হোসেন খোকার ছেলে বলেই বিএনপি তাকে প্রার্থী করেছে। আর তাপস উচ্চশিক্ষিত, তিনি তিনবারের এমপি। তিনি তার যোগ্যতায় এই মনোনয়ন পেয়েছেন।

এর পর বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের (বাপা) সভাপতি অ্যাডভোকেট সুলতানা কামালের সমালোচনা করেন হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, সুলতানা কামাল সবসময় কড়া কড়া কথা বলে দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করেন।

সুলতানা কামাল পরিবেশ নিয়ে বাংলাদেশের অর্জন দেখতে পান না মন্তব্য করে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘সুলতানা কামাল নিজে দেখতে না পেলেও জাতিসংঘ কিন্তু লক্ষ্য করেছে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর বাংলাদেশে পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণে অনেক কাজ হয়েছে। এজন্য তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চ্যাম্পিয়ন অব দ্য আর্থ পুরস্কারে ভূষিত করেছে।