প্রচ্ছদ > হবিগঞ্জ > ওমানে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ছেলের লাশ পেতে বাবা মায়ের আহাজারি

ওমানে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ছেলের লাশ পেতে বাবা মায়ের আহাজারি

হবিগঞ্জ

মাধবপুর প্রতিনিধি:১৫ জুলাই ওমানে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলার বহরা গ্রামের ফুল মিয়া। তার মৃত্যুর সংবাদ পাওয়ার পর থেকে থামছে ফুল মিয়া বাবা মায়ের আহাজারি।

এদিকে নিহত ফুল মিয়ার পরিবারের সদস্যরা জানেন না কিভাবে লাশ দেশে আনতে হবে। এলাকার চেয়ারম্যান মেম্বারের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন তার বাবা। কিন্তু ছেলের লাশ দেশে আনা কোনো ব্যবস্থা করতে পারছেন না তারা। শেষ বারের মত ফুল মিয়ার নিথর দেহ দেখার জন্য ব্যাকুল হয়ে অপেক্ষায় রয়েছেন তার বাবা মা।

ফুল মিয়ার পরিবার সূত্রে জানা যায়, ফুল মিয়ার বাবা শিশু মিয়া একজন দিন মজুর। অভাব অনটনের সংসার তাদের। অভাবের যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে ধার দেনা করে ছেলেকে ২০১১ সালে ওমান পাঠান তার বাবা। ছেলের পাঠানো টাকায় তাদের সংসার থেকে অভাব প্রায় দূর হতে চলছিল। মোটামুটি ভালই চলছিল তাদের সংসার। কিন্তু গত ১৫ জুলাই ওমানের সড়ক দুর্ঘটনায় ফুল মিয়া মারা যাওয়ার সাথে সাথে তার পরিবারের নেমে আসে দুঃখের ছায়া। বর্তমানে ফুল মিয়ার লাশ ওমানের হাসপাতালের হিম ঘরে রাখা হয়েছে বলে তার পরিবার থেকে জানানো হয় ।

নিহত ফুল মিয়ার বাবা শিশু মিয়া জানান, অনেক কষ্ট করে প্রিয় আদরের সন্তানকে ওমানে পাঠিয়ে ছিলাম। আমার ছেলে এভাবে বিদেশে মারা যাবে জানলে তাকে বিদেশে পাঠাতাম না । আমরা এখন শুধু আমার ছেলের লাশ চাই। আমি জানি না কিভাবে ওমান থেকে লাশ আনতে হয়। এই সামর্থ্য আমার নাই। সরকারের কাছে আকুল আবেদন আমার ছেলের লাশটা যেন তারা দেশে আনার ব্যবস্থা করে দেন।

এ ব্যাপারে বহরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান জানান, ওমানে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ফুল মিয়ার লাশ তাড়াতাড়ি ফেরত পেতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে ওমান দূতাবাসে আবেদন করব। তাছাড়া আমাদের স্থানীয় সংসদ সদস্য বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী সহযোগিতা কামনা করেছি। আশা করি তাদের সহযোগিতায় ফুল মিয়ার লাশ তার মা বাবা তাড়াতাড়ি ফিরে পাবে।