দু’সপ্তাহের ট্রাফিক শৃঙ্খলা কার্যক্রমেও বন্ধ হয়নি যানবাহনের অনিয়ম

সময়ের ডাক ডেস্ক:: সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে চতুর্থবারের মত যে, ট্রাফিক শৃঙ্খলা কার্যক্রম শুরু হয়েছিল তা শেষ হচ্ছে আজ। জানুয়ারির ১৫ তারিখে রাজধানীতে দু’সপ্তাহের ট্রাফিক শৃঙ্খলা কার্যক্রম শুরু করে ঢাকা মহানগর পুলিশ। এ কাজে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন রেড ক্রিসেন্ট, স্কাউট, গার্লস গাইডের সদস্যদেরও যুক্ত করা হয়। পথচারী ও যানবাহন চালকদের সচেতন করতে মাইকিং, লিফলেট বিতরণসহ নানা পদক্ষেপ নেয় ট্রাফিক বিভাগ।

পক্ষকালের এ কার্যক্রমের শেষদিনে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায় বিপজ্জনকভাবে সড়ক পারাপারের দৃশ্য। পাল্লা দিয়ে, রেষারেষি করে চলছে বাস। সড়কের যেখানে সেখানে বাস থামিয়ে যাত্রী তোলা ও নামানোও বন্ধ হয়নি। কোন কোন স্থানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চোখের সামনেই চলছে এমন বিশৃঙ্খলা।

ট্রাফিক পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, পক্ষকাল ব্যাপি ট্রাফিক শৃঙ্খলা কার্যক্রমে রাজধানীতে মোট মামলা হয়েছে ৮৮ হাজার ৬৬৮টি। জরিমানা আদায় হয়েছে প্রায় ৫ কোটি টাকা। মামলার মধ্যে গণপরিবহনের বিরুদ্ধে ১৯ হাজার ২৫৮টি। মোটরসাইকেলের বিরুদ্ধে ৩৭ হাজার ৫৬৭টি। ট্রাকের বিরুদ্ধে ৬৭২টি, কাভার্ড ভ্যানের বিরুদ্ধে ২ হাজার ৫৫৪টি, সিএনজি অটো রিকশার বিরুদ্ধে ১১ হাজার ৪৭৪টি, ব্যক্তিগত গাড়ির বিরুদ্ধে ১১ হাজার ২৭৯টি, পিকআপের বিরুদ্ধে ৩ হাজার ৯১৯টি ও হিউম্যান হলারের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে ২৬৭টি।

পরিবহন নিরপত্তা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, হাজার হাজার মামলা, কোটি কোটি টাকার জরিমানা আদায় করে সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানো সম্ভব না। বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সামছুল হক বলেন, জোড়া তালি দেয়ার যে চেষ্টা করা হচ্ছে তা বন্ধ করতে হবে। প্রকৃত সমস্যা চিহ্নত করা আছে। সেই সমস্যার আগে সমাধান করতে হবে।

সুপারিশ বাস্তবায়ন করা গেলে সড়কে শৃঙ্খলা যেমন ফিরবে, তেমনি মৃত্যুর মিছিল অনেকটা কমে আসবে বলেও মনে করেন তিনি।