প্রচ্ছদ > শীর্ষ সংবাদ > সিলেটে সিজার করতে গিয়ে নবজাতকের মাথা কাটলেন ডাক্তার!

সিলেটে সিজার করতে গিয়ে নবজাতকের মাথা কাটলেন ডাক্তার!

শীর্ষ সংবাদ সিলেট প্রতিক্ষণ

সময়ের ডাক ডেস্ক : সিলেটের নবাব রোডস্থ নিরাময় পলি ক্লিনিকে সিজার করতে গিয়ে এক নবজাতকের মাথা কেটে ফেলেছেন ডাক্তার। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় এই নবজাতককে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আহত নবজাতক সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার শালুটিকরের লামাপাড়া গ্রামের মো. জহিরুল হক ও রাশেদা বেগমের সন্তান। রাশেদা বেগম বর্তমানে নিরাময় ক্লিনিকের তৃতীয় তলার একটি কেবিনে ভর্তি আছেন।

নবজাতকের মামা ও রাশেদা বেগমের ভাই মো. জসিম উদ্দিন বলেন- শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে রাশেদার প্রসব ব্যথা শুরু হলে তারা তাকে সিলেটে নিয়ে আসেন। রাত সাড়ে ৮টার দিকে তারা তাকে নবাব রোডস্থ নিরাময় পলি ক্লিনিকে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসকের পরামর্শে রাশেদাকে সিজার করানোর সিদ্ধান্ত নেন তারা। সাড়ে ১০টার দিকে ডা. শায়লা বেগম সিজার করেন। সিজার শেষে বাচ্চাকে দেখতে চাইলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নানা তাল-বাহানা করে। পরে বাচ্চাকে আমাদের কাছে দিলে আমরা দেখতে পাই বাচ্চার মাথার পেছনের দিক কেটে গেছে। সেখান থেকে রক্ত বের হচ্ছে। রক্তাক্ত অবস্থায়ই তারা বাচ্চাকে আমাদের কাছে এনে দেয়। তখন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বাচ্চার চিকিৎসার পর্যাপ্ত ব্যবস্থা করতে না পারলে আমরা তাকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাই। বর্তমানে সে সেখানেই আছে।

ঘটনার ব্যপারে নিরাময় পলি ক্লিনিকের ম্যানেজার পারভেজ চিকিৎসকের বরাত দিয়ে বলেন- বাড়িতে থাকতেই রোগির স্বজনরা বাচ্চা প্রসব করানোর চেষ্টা করেছেন। এতেই বাচ্চা আহত হয়েছে। অনেক অভিজ্ঞ ডাক্তার দিয়ে আমরা সিজার করিয়েছি। ডাক্তারের কোন ভুল হওয়ার কথা নয়।

তবে বাসায় বাচ্চা প্রসব করানোর কোন চেষ্টা করা হয়নি বলে জানিয়েছেন নবজাতকের মামা ও রাশেদা বেগমের ভাই মো. জসিম উদ্দিন।