রাজনগরে স্কুল ছাত্রী তানজিনা চিকিৎসার অভাবে মৃত্যুর দ্বারপ্রান্তে

মোঃবিলাল উদ্দিন: মানবতার জন্য জীবন বাজী রেখে অসংখ্য স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন অসহায় হত দরিদ্র মানুষের সেবায় কাজ করে যাচ্ছে। আর সমাজের বিত্তবান লোকরা অপ্রয়োজনে বিলাসিতা আর রুপসজ্জায় অপচয় করছে কত টাকা কিন্তু সমাজে কত মানুষ একটু সহানুভূতি আর আর্থিক সহায়তার জন্য তাদের দুয়ারে দুয়ারে ধর্ণা দিতে হয়। চিকিৎসার অভাবে আমাদের এ সমাজে কত মানুষ অকালে চলে যাচ্ছে না ফেরার দেশে।অর্থের অভাবে চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সমাজের হত দরিদ্র পরিবারের লোকজন। ঠিক এমন এক পরিস্থিতির শিকার মৌলভীবাজার জেলার জেলার রাজনগর উপজেলার উত্তর ভাগ ইউপির জোড়াপুর গ্রামের হত দরিদ্র পরিবার মরহুম আলম মিয়ার মেয়ে রামপুর বালক সরকার প্রাঃ বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর মেধাবী ছাত্রী তানজিনা পেটের ব্যাথার কারনে স্কুলে যাওয়া হয় না। পরিবারের ধারনা লেখাপড়ার চাপে হয়তো পেটে ব্যাথার অজুহাত। এ দিকে প্রচন্ড ব্যাথায় মাটিতে লুটেপুটে কাতরাচ্ছে। দরিদ্র আর পিতৃহীন পরিবারে দুই ভাইয়ের দিনমজুরের পয়সায় সংসার চলানো দুরের কথা তানজিনার চিকিৎসা করানো সম্ভব হয় না। প্রাথমিক ভাবে চিকিৎসা নিয়ে ও কোন ফল হয়নি দিন দিন তানজিনার শারীরিক অবস্থার অবনতি অবশেষ ডাক্তাররা গভীর পরীক্ষা নিরিক্ষার পর ডাক্তারদের ভাষায়(Esophageal varies stage)যা মরণব্যাধি লিভার সিরোসিস রোগ চিহ্নিত হয়েছে।এ অসহায় হত দরিদ্র পরিবারের পক্ষে বিশাল ব্যয়বহুল চিকিৎসা করানো সম্ভব হচ্ছে না। তানজিনা ও তার পরিবারের পক্ষ থেকে সমাজের বিত্তবান ও স্বেচ্ছা সেবী সংগঠনের প্রতি আকুল আবেদন জানিয়েছেন। তাদের প্রতি একটু সহানুভূতি আর সাহায্যের হাত বাড়িয়ে মেধাবী স্কুল ছাত্রীর জীবন বাঁচাতে সমাজের সকল শ্রেণি পেশার মানুষের প্রতি আকুল আবেদন। আর্থিক সহ অন্যান্য সহযোগীতার জন্য যোগাযোগ:সুবেরাজ-০১৭২০০৮৭৩৩৪/ময়জুল হক মাষ্টার মোবাইল,বিকাশ নং ০১৭১৫০০৩৫১০.