জিয়ার পরিবারকে নিশ্চিহ্ন করতে চায় সরকার: এম এ হক (ভিডিও)

নিজস্ব প্রতিবেদক :: বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা ও জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি এম এ হক বলেছেন, ‘বর্তমান সরকার জিয়া পরিবার ও বিএনপিকে নিশ্চিহ্ন করতে চায়। ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার মামলার ফরমায়েশি রায়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে যাবজ্জীবন কারদণ্ড দেয়া এরই অংশ। বিএনপিকে নিশ্চিহ্ন করতে নিরপরাধ নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে যাবজ্জীবন ও সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবরকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে। বর্তমার সরকার বিরোধী রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে নির্মূলের ষড়যন্ত্র করছে। এ রায় সরকারের প্রতিহিংসামূলক কর্মকান্ডের বহিঃপ্রকাশ।’

এখানে ক্লিক করুন


বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৩টায় ঐতিহাসিক রেজিস্ট্রারি মাঠে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপির উদ্যোগে ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলার মামলায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে সাজা প্রদানের প্রতিবাদে ও রায় বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ কর্মসূচীতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল কাহের শামীমের সভাপতিত্বে ও মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আজমল বখত্ চৌধুরী সাদেকের পরিচালনায় এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক সাংসদ দিলদার হোসেন সেলিম, কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক সাংসদ শফি আহমদ চৌধুরী, কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ডা. শাহরিয়ার হোসেন চৌধুরী, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ, সহ-সভাপতি এ কে তারেক কামাল, শাহ জামাল নুরুল হুদা, মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম জালালী পংকী, শামীম সিদ্দিকী, মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি কাউন্সিলর ফরহান চৌধুরী শামীম, কাউন্সিলর রেজাউল হাসান কয়েছ লোদী, হাবীবুর রহমান হাবীব, জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক সাদেক মামুন, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আহাদ খান জামাল, দপ্তর সম্পাদক ফজলুল হক আবুল কাশেম, মহানগর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক আ্যডভোকেট আতিকুর রহমান সাবু, হুমায়ুন আহমদ মাসুক, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুব চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক সৈয়দ রেজাউল কবির আলো, জেলা ছাত্রদল সভাপতি আলতাফ হোসেন সুমন প্রমুখ।