প্রচ্ছদ > সিলেট প্রতিক্ষণ > হবিগঞ্জে স্কুলছাত্রীসহ তিনজনের আত্মহত্যা

হবিগঞ্জে স্কুলছাত্রীসহ তিনজনের আত্মহত্যা

সিলেট প্রতিক্ষণ হবিগঞ্জ

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের বানিয়াচঙ্গে ও আজমিরীগঞ্জে বিষপানে এক স্কুলছাত্রীসহ তিনজন আত্মহত্যা করেছে। মঙ্গলবার হবিগঞ্জ সদর আধুনীক হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়।

জানা যায়, বানিয়াচং উপজেলার মন্দরি গ্রামের রাসেল মিয়ার মেয়ে স্থানীয় একটি স্কুলের ৭ম শ্রেণির ছাত্রী রুখসানা আক্তার দুপুরে বিষপান করে ছটপট করতে থাকে। পরে তাকে তার পরিবারের লোকজন উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনীক হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসাধিন অবস্থায় সন্ধায় তার মৃত্যু হয়। নিহত রুখসানার পিতা রাসেল মিয়া জানান- রুখসানা দুইদিন ধরে স্কুলে না যাওয়ায় তার মা গালিগালাজ করেন। এতে সে রাগে ও অভিমানে ঘরে থাকা বিষ পান করে আত্মহত্যা করে।

এদিকে, একই উপজেলার বড়ইউড়ি গ্রামে জিয়া উদ্দিন নামে এক যুবক শ্বশুর বাড়িতে বিষপানে আত্মহত্যা করেছে। সে মৌলভীবাজার জেলার বাসিন্ধা শিমুল মিয়ার ছেলে। তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন জানান- দুইবছর আগে জিয়া উদ্দিন রড়ইউরি গ্রামের জনৈক ব্যক্তির কন্যা রুনার সাথে পরিচয় হয়। পরে সে তার পিত্রালয়ে ছেড়ে রুনাকে বিয়ে করে রড়ইউড়ি গ্রামে ঘর জামাই থেকে যায়। মঙ্গলবার সকালে সে পরিবারের সকলের অঘোচরে বিষপান করে ছটপট করতে থাকে। বিষয়টি আচঁ করতে পেরে তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন তাকে হবিগঞ্জ সদর আধুনীক হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধিন অবস্থায় দুপুরে তার মৃত্যু হয়।

অপর দিকে, আজমিরীগঞ্জ উপজেলার শিবপাশা গ্রামে সুজিনা বেগম (২৫) নামে তিন সন্তানের জননী বিষপান করে আত্মহত্যা করেছেন। সে ওই গ্রামের এনামূল হকের স্ত্রী। মঙ্গলবার সকালে কোন কারণ ছাড়াই বিষপান করে সে ছটপট করতে থাকে। পরে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনীক হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তৃব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হবিগঞ্জ সদর আধুনীক হাসপাতালের চিকিৎসক ক্রিলোক কান্তি।