১৮ দিনেও উদ্ধার হয়নি জকিগঞ্জের অপহৃত স্কুল ছাত্রী

জকিগঞ্জ প্রতিনিধি :: জকিগঞ্জের অপহৃত স্কুল ছাত্রী রুবি রানী দাসকে ১৮দিনেও উদ্ধার করতে পারেনি জকিগঞ্জ থানা পুলিশ। এ নিয়ে সংখ্যালঘুদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে। ২০ সেপ্টেম্বর খলাছড়া ইউনিয়নের দুবড়িরপার গ্রামের মৃত অনিল কুমার দাসের কন্যা ঈদগাহ বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী রুবি রানী দাস (১৫) দিনের বেলা নিজ বাড়ী থেকে অপহৃত হন। এ নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

এ ঘটনায় রুবি রানী দাসের ভাই ইন্দ্রজিত কুমার দাস অজয় বাদী হয়ে একই ইউনিয়নের ষাইটশৌলা গ্রামের আব্দুল খালিকের পুত্র আমজাদ হোসেনসহ ৪ জনকে আসামী করে জকিগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। ২৩ সেপ্টেম্বর অভিযোগটি রেকর্ড করা হয়।

লিখিত অভিযোগে অজয় উল্লেখ করেন, তার ছোট বোন রুবি রানী দাস বিদ্যালয়ে যাওয়া আসার পথে বখাটে আমজাদ হোসেন দলবল নিয়ে রুবিকে উক্ত্যক্ত করত। এ নিয়ে আমজাদের বিরুদ্ধে তার পিতা ও অভিভাবকদেরকে বার বার বিচার দিলেও তারা কোন ব্যবস্থা নেননি।

জকিগঞ্জ উপজেলা পূজা পরিষদের সভাপতি সঞ্জয় চন্দ্র নাথ ও হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি বিভাকর দেশমূখ্য এক যৌথ বিবৃতিতে তীব্র নিন্দা জানিয়ে দ্রুত ভিকটিম উদ্ধার করে আসামীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জোর দাবী জানান। তারা আরও বলেন, রুবি রানীকে উদ্ধার করতে বিলম্ব হলে আন্দোলন কর্মসুচি ঘোষণা করা হবে।

এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জকিগঞ্জ থানার এসআই কল্লোল গোস্বামী বলেন, আসামী গ্রেফতার ও ভিকটিম উদ্ধারে অভিযান অব্যাহত আছে। আশা করছি কম সময়ের মধ্যে ভিকটিম উদ্ধার করতে পারবো।