এ বিয়ে হবে না, পাত্র বাদ্যযন্ত্র বাজায়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : পাত্র বাদ্যযন্ত্র বাজায় তাই এ বিয়েতে মত নেই কনের পরিবারের। এদিকে পছন্দের মানুষকে বিয়ে করতে আদালতের দ্বারস্থ হন কনে। কিন্তু আদালতও পরিবারের পক্ষেই রায় দিয়েছেন।

এ ঘটনাটি ঘটেছে সৌদি আরবে। সূত্র: টাইমস লাইভ

আদালতের রায়ে বলা হয়েছে, যেহেতু ছেলে বাদ্যযন্ত্র বাজান, তাই ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে তিনি কনের উপযুক্ত নন।

যদিও ঔ নারীর আদালতকে বলেছেন, বাদ্যযন্ত্র বাজাতে পারলেও তার পছন্দের পাত্র ধর্মীয় সব রীতিনীতি মেনে চলেন।

কিন্তু তার কথা আমলে নেইনি আদালত।

তবু পেশায় একজন ব্যাংক ম্যানেজার ৩৮ বছর বয়সী ওই সৌদি নারী দমেননি। এ ব্যাপারে দেশের রাজকীয় আদালতে যাবেন বলে ইচ্ছা প্রকাশ করেন।

টাইমস লাইভে প্রকাশ, ওই হবু পাত্র একটি অনুষ্ঠানে বাদ্যযন্ত্র বাজাচ্ছেন আদালতে এমন ভিডিও পেশ করে ওই নারীর ভাই।

ভিডিওটি দেখে কনের অভিভাবকের মতকে বহাল রাখেন সৌদি আদালত।

উল্লেখ্য, সৌদি আরবের অভিভাবকত্ব ব্যবস্থায় নারীর জীবনের প্রায় সবকিছুই পরিবারের পুরুষ অভিভাবক বা স্বামী নিয়ন্ত্রণ করেন।

সে অনুযায়ী, বিয়ে করতে হলে নারীকে তার পরিবারের পুরুষ অভিভাবকের কাছ থেকে অনুমতি নিতে হয়।