ভয়াবহ পরিবেশ ঝুঁকিতে বিছনাকান্দি ও রাতারগুল এলাকা

সময়ের ডাক ডেস্ক: অপরিকল্পিতিভাবে পাথর উত্তোলন ও পর্যটনে অব্যবস্থাপনার কারণে সিলেটের বিছনাকান্দি ও রাতারগুল পর্যটন এলাকা পরিবেশগত ঝুঁকিতে রয়েছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)।

সম্প্রতি এই এলাকার অবস্থা পর্যাবেক্ষন করে মঙ্গলবার একটি প্রতিবেদনে এ তথ্যগুলো জানায় সংগঠনটি। প্রতিবেদনে এই দুই এলাকাকে পরিবেশগত সঙ্কটাপন্ন এলাকা ঘোষণা করার দাবি জানায় বাপা।

অপরিকল্পিতভাবে পাথর উত্তোলন করার কারণে বিছনাকান্দি ও অনিয়ন্ত্রিত পর্যটনে রাতারগুল সঙ্কটাপন্ন । এ অবস্থা থেকে উত্তরণে জন্য অবিলম্বে বিছনাকান্দি ও রাতারগুলকে পরিবেশগত সঙ্কটাপন্ন এলাকা ঘোষণা করা প্রয়োজন।

এদিকে দীর্ঘদিন থেকে বোমা মেশিন দিয়ে অপরিকল্পিতভাবে পাথর উত্তোলন করার কারণে বিছনাকান্দি পর্যটন এলাকায় এমন মৃত্যুকূপ তৈরি হয়েছে যা পর্যটকদের জীবন বিপন্ন করতে পারে। এছাড়া পরিত্যাক্ত পাথর কোয়ারিতে সৃষ্টি হওয়া চোরাবালীতে অসাবধানতাবশত পর্যটকরা আটকে যেতে পারেন বলে উল্লেখ করা হয় বাপার প্রতিবেদনে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বিছনাকান্দি এলাকায় সরকারী ও বেসরকারীভাবে সৌন্দর্য্য দর্শনে পর্যটকদের প্রলুব্ধ করা হলেও অদ্যাবধি গড়ে তোলা হয়নি পর্যটকবান্ধব সুব্যাবস্থা। হাজার হাজার পর্যটকের উপস্থিতি থাকা সত্ত্বেও নেই কোন ব্যাবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ। নারী-শিশুদের জন্য নেই আশ্রয়স্থল, রয়েছে শৌচাগারের অভাব। আকস্মিকভাবে উজান থেকে ঢল নেমে আসার সতর্কিকরণ ব্যাবস্থা না থাকায় ভবিষ্যতে ভয়াবহ দূর্ঘটনার আশংকা করেছেন বাপা’র পর্যবেক্ষকেরা ।

পর্যটকদের উচ্চস্বরের চীৎকার, বাদ্যযন্ত্র ব্যাবহার, যত্রতত্র প্লাস্টিক বোতল ও খাবারের প্যাকেট ফেলা নিয়ন্ত্রণে বন-বিভাগ ছয় বছরেও কোন পরিকল্পিত ব্যাবস্থাপনা গড়ে তুলতে পারেনি বলে জানা যায় বাপার প্রতিবেদনে । এদিকে পরিবেশবাদীদের প্রবল আপত্তির মুখে ওয়াচ টাওয়ার নির্মান করে বন ধ্বংসের শুভ সূচনা করা হয়। বনের তিন প্রান্ত থেকে আসা শতাধিক নৌকার পর্যবেক্ষক দল কংক্রিটের এই ওয়াচ টাওয়ার পরিদর্শন করেন। পর্যবেক্ষক দল, ওয়াচ টাওয়ারে শতাধিক পর্যটকের উপস্থিতি প্রত্যক্ষ করেছেন। অত্যন্ত নিম্নমানের সামগ্রীতে তৈরি এই ওয়াচ টাওয়ার, যে কোনও সময় ভেঙ্গে পড়ে পর্যটকদের প্রাণহানি ঘটাতে পারে বলে প্রতিবেদনে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে।

পর্যাকেক্ষক এই দলের নেতৃত্ব দেন বাপার কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক শরীফ জামিল। এছাড়া দলে উপস্থিত ছিলেন বাপার জাতীয় পরিষদ সদস্য ও সিলেট শাখার সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম কিম, বাপা সিলেট শাখার বদরুল ইসলাম চৌধুরী প্রমুখ ।