জৈন্তাপুরে অপহরণ মামলার ভিকটিম উদ্ধার, অপহরনকারী আটক

জৈন্তাপুর প্রতিনিধি :: সিলেটের জৈন্তাপুরে অপহরণ মামলার ভিকটিমকে উদ্ধার করেছে মডেল থানা পুলিশ। অপহরনের ঘটনায় আটক-১।মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ২২ সেপ্টেম্বর জৈন্তাপুর উপজেলার জৈন্তাপুর ইউনিয়নের কেন্দ্রী মৌজার আব্দুল আলীম বাদী হয়ে তার মেয়ে রহিমা বেগম(১৫) কে অপহরনের অভিযোগ এনে জৈন্তাপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। পুলিশ অভিযোগটি নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৭/৩০ ধারায় মামলা রেকর্ড করে, যাহার নং-১৭, তারিখ ২৪-০৯-২০১৮।

অপহরনকারী ও ভিকটিম উদ্ধারে পুলিশ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানে অভিযোগের অন্যতম আসামী কেন্দ্রী মৌজার শাহীন আহমদের স্ত্রী জয় তেরা বেগম(২২) কে আটক করে ঐ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করে পুলিশ। অপরদিকে ভিকটিম উদ্ধারে পুলিশ অভিযান অব্যাহত রাখে। অবশেষে ২৫ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার দুপুর ২টায় সিলেটের শাহপরান মাজার এলাকা হতে মামলার ভিকটিম রহিমা বেগম কে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

ভিকটিম রহিমা প্রতিবেদককে জানায়- তার পিতা সহ পরিবারের লোকজন উপজেলার গোয়াবাড়ী গ্রামে বিয়ের প্রস্তুতি নেন এবং ২৮ সেপ্টেম্বর শুক্রবার বিয়ের দিন ধার্য্য করে পরিবার। পূর্ণ বয়স্ক না হওয়ায় সে বিয়ে করতে রাজি ছিল না তাই তার পূর্ব পরিচিত কেন্দ্রী মৌজার আজির উদ্দিনের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক রাজুর হাত ধরে পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে জানতে মামলার বাদী আব্দুল আলিম প্রতিবেদককে জানান- আমার মেয়েকে শাহীন ও তার বউ জয়তেরা বেগম কৌশলে অপহরন করে রাজুর সাথে পালিয়ে যেতে সহায়তা করে। মেয়ে উদ্ধারের জন্য আমি লিখিত অভিযোগ করেছি। আপনার মেয়ের বয়স পূর্ণ হয়নি কিন্তু আপনি বিয়ের দিন ধার্য করলেন প্রশ্ন করা হলে তিনি কোন সদুত্তর দেননি।

এ বিষয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ খান মোঃ মাইনুল জাকির বলেন- পিতা বাদী হয়ে অপহরনের অভিযোগ দায়ের করলে বিষয়টি গুরুত্বের সাথে আমলে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা অভিযুক্ত ১জন কে আটক করি।
গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে গতকাল ২৫ সেপ্টেম্বর ভিটটিম উদ্ধার করি। এরিপোর্ট খেলা পর্যন্ত ভিকটিম আমার থানা হেফাজতে রয়েছে।