ওসমানীনগরের নিখোঁজ মাদ্রাসা ছাত্র শ্রীমঙ্গল থেকে উদ্ধার

সময়ের ডাক: নিখোঁজ সিলেটের ওসমানীনগরের মাদ্রাসা ছাত্র মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-৯) এর একটি বিশেষ টিম অভিযান চালিয়ে মাদ্রাসা ছাত্রকে উদ্ধার করে।

শুক্রবার র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-৯) এর মিডিয়া অফিসার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মনিরুজ্জামান জানান, র‌্যাব-৯ এর একটি আভিযানিক দল এএসপি মো. আফজাল হোসেন এর নেতৃত্বে মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল থানা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। বৃহস্পতিবার বিকেলে অভিযানে মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল থানাধীন পুরাতন বাজার এলাকায় আলী ফুডস্ ফুসকার দোকান থেকে নিখোঁজ ভিকটিমকে উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত ভিকটিমের নাম নাহিদ আহমদ (১৪)। সে সিলেট জেলার ওসমানীনগর গজিয়া গ্রামের মো. সাজু মিয়ার ছেলে।
উল্লেখ্য যে, নিখোঁজ মাদ্রাসা ছাত্র নাহিদ আহমদ (১৪) নবীগঞ্জের আউশকান্দি ইউপির পরকুল হাফিজিয়া মাদ্রাসার সপ্তম শ্রেণীর ছাত্র। ৩১ আগস্ট মাদ্রাসা গিয়ে আর ফিরে আসেনি।

নাহিদ নিখোঁজ হওয়ায় তার বাবা সিলেট জেলার ওসমানীনগর থানায় একটি জিডি করেন যার জিডি নং-৫১৮, তারিখ- ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮। মাদ্রাসার ছাত্র নিখোঁজ হওয়াকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে ফলোআপভাবে প্রকাশিত হয়। ভিকটিমের বাবা ছেলেকে উদ্ধারের জন্য র‌্যাব-৯ এ একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। উক্ত অভিযোগের প্রেক্ষিতে অত্র ব্যাটালিয়নের একটি বিশেষ টিম অভিযান চালিয়ে ভিকটিমকে উদ্ধার করে এবং পলায়নের কারণ জিজ্ঞাসাবাদ করে।

প্রাথমিকভাবে জানা যায় যে, লেখাপড়া করতে অনিহা প্রকাশ করে সিলেট হতে পালিয়ে মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল থানাধীন পুরাতন বাজারস্থ আলী ফুডস্ ফুসকার দোকানে চাকুরী গ্রহণ করে। ঊদ্ধারকৃত ভিকটিমকে সিলেট জেলার ওসমানীনগর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।