উন্নয়নের জন্যই শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী করতে হবে : শফিক চৌধুরী

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেছেন, দেশ ও জাতির অগ্রগতি ও উন্নয়নের জন্যই আবারও জাতির জনকের কন্যা শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী করতে হবে। এজন্য আসন্ন নির্বাচনে নৌকা প্রতিকে ভোট দিয়ে সারা দেশে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদেরকে নির্বাচিত করার জন্য আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। তাই নির্বাচনী আসনের প্রত্যেকটি গ্রামের প্রত্যেকটি ঘরে ঘরে গিয়ে সরকারের বাস্তবায়নকৃত উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড জনসম্মুখে তুলে ধরে জনে জনের কাছে নৌকায় ভোট চাইতে হবে আমাদেরকে। জনগণকে বুঝাতে হবে নৌকার বিজয় কিভাবে মানুষের জীবনে মঙ্গল বয়ে আনে।

তিনি শনিবার রাতে সিলেটের বিশ্বনাথে নৌকার পক্ষে উপজেলার সদর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের প্রগতি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সেন্টারের ‘সেন্টার কমিটি’ গঠনের লক্ষ্যে অনুষ্ঠিত কর্মীসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথাগুলো বলেন।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পংকি খান বলেন, নৌকার বিজয়ে পুনঃরায় প্রধানমন্ত্রী হবেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা আর সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য হবে শফিকুর রহমান চৌধুরী। এতে অব্যাহত থাকবে এই নির্বাচনী আসন’সহ সারা দেশের উন্নয়নেরধারা। দেশের সর্বস্তরের মানুষ পাবেন জীবনে মঙ্গল বয়ে আনা নৌকার শান্তির বার্তা। তাই নির্বাচনে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।

বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আখদ্দুছ আলীর সভাপতিত্বে ও বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মহব্বত আলীর পরিচালনায় কর্মীসভাগুলোতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মকদ্দছ আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল আজিজ সুমন, কার্যনির্বাহী সদস্য ও বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান-১ রফিক হাসান মেম্বার, বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সুফি সামসুল ইসলাম, উপজেলা কৃষক লীগের সহ সভাপতি সাহাব উদ্দিন, এলাকার প্রবীন মুরব্বী মখলিছ আলী, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আলতাব হোসেন, যুবলীগ নেতা মুহিবুর রহমান সুইট, সেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রফিক আলী, উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জুবায়ের আহমদ জয়, ছাত্রলীগ নেতা ইলিয়াস আলী, আশরাফ আহমদ। শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন ক্বারী আবদুল মান্নান ও স্বাগত বক্তব্য রাখেন জগন্নাথপুর লাইন শ্রমিক লীগের যুগ্ম সম্পাদক বাবুল মিয়া।

কর্মীসভাগুলোতে উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যান সম্পাদক শ্রম বিষয়ক সম্পাদক সাধন চন্দ্র দাশ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক শামীম আহমদ, সহ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শাখায়াত হোসেন, এলাকার মুরব্বী ও আওয়ামী লীগ নেতা মখলিছ আলী, আবদুর রুপ, সেবুল মিয়া, কবির আহমদ, বশির মিয়া, আবদুস ছালাম, চন্দন মিয়া, আমির আলী, আরজু মিয়া, বশির আহমদ, আবদুল হাসিম, ফয়জুল রহমান, ইছহাক আলী, আবদুল হান্নান, তাহির মিয়া, মনোফর আলী, হারুনুর রশীদ, ফিরুজ আলী, মস্তাব আলী, রইছ আলী, হাজী ইব্রাহিম আলী, সৈয়দ মিয়া, আবদুল লতিফ, আবদুল হাসিম, নূর মিয়া, আনোয়ার মিয়া, আবদুল আহাদ, মাসুক মিয়া, আবদুল কাদির, মানিক মিয়া, নূরুল ইসলাম, জালাল মিয়া, ফিরুজ আলী, মজম্মিল আলী, আরশ আলী, জুনাব আলী, চমক আলী, সিরাজ মিয়া, তৈমুছ আলী, প্রবাসী সিরাজুল ইসলাম, আবদুল বাতিন, উপজেলা কৃষক লীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক জামাল আহমদ, উপজেলা যুবলীগ নেতা আবদুল হক, উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি বদরুল আলম, যুবলীগ নেতা এমদাদ হোসেন নাঈম, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রফিক মিয়া, সিজিল মিয়া, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক উপ-সম্পাদক আকমল হোসেন, ছাত্রলীগ নেতা সিরাজুল ইসলাম রুকন, কামরুল হাসান, রহিম আহমদ, মাছুম আহমদ, সুজেল মিয়া, জাকির হোসেন, আবিদুর রহমান আবিদ, জুয়েল আহমদ, পংকি মিয়া, মামুন মিয়া, সংগঠক শফিক মিয়া, ওয়ারিছ আলী, জাহেদ আহমদ, এলাইছ মিয়া, আরশ আলী, বিভাষ দে, রাসেল আহমদ, আবদুল করিম, জুয়েল আহমদ, নওশাদ আহমদ, আবদুত মুকিত, খালেদ আহমদ, মোহাম্মদ আলী, ইলিয়াস আলী প্রমুখ।