বনবিভাগের জমি উদ্ধারকালে হামলা, রেঞ্জ অফিসারসহ আহত ৩

 

সময়ের ডাক:রাতারগুল বনের পাশে দখল হয়ে যাওয়া জমি পুনরুদ্ধারকালে স্থানীয় দখলদার সাব্বির আহমদের নেতৃত্বে হামলায় বনবিভাগের একজন রেঞ্জ কর্মকর্তা ও দুইজন বনরক্ষী আহত হয়েছেন। বুধবার (৫ সেপ্টেম্বর) সকালে এ হামলার ঘটনা ঘটে। পরে হামলাকারীদের সাথে পুলিশ ও বন বিভাগের করমকর্তাদের সংঘর্ষ বাধে।

গুরুতর আহত রেঞ্জ কর্মকর্তা সাদ উদ্দিন (৪৮) সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিউরোলজি বিভাগে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে জানিয়েছেন সিলেট বিভাগীয় বন কর্মকর্তা আরএস মুনিরুল ইসলাম।

ডাক্তারদের বরাত দিয়ে তিনি জানান, মাথায় আঘাত পেয়ে অজ্ঞান হয়ে যাওয়া সাদ উদ্দিনের জ্ঞান ফিরেনি এবং তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। আহত বাকি দুই বনরক্ষী শুভ্র আহমদ (৩১) ও আক্কাস য়ালী (৩২) একই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলেও জানান তিনি।

 

সম্প্রতি রাতারগুল বনের দুই পার্শ্বে দখল হয়ে যাওয়া ২০১ একর জায়গা উদ্ধার করে বনবিভাগ। এ সকল জায়গায় তারা বনায়নের উদ্যোগ গ্রহণ করে।

বনের পাশে মহেশখেড় এলাকায় ১৩১ একর জমিতে মঙ্গলবার সকালে বনবিভাগের ৪৫জন শ্রমিক ১০ হাজার মুর্তা বেতের গাছ লাগায়। এর পরেই স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী লোক দলবল নিয়ে এ সকল গাছের চারা উপড়ে ফেলে।

আজ (বুধবার) সকালে এ জায়গা পুনরুদ্ধারে স্থানীয় ভূমি প্রশাসন ও পুলিশ নিয়ে বনবিভাগের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে যান এবং আবারো চারা রোপন করতে থাকেন।

এ সময় বনবিভাগের কর্মকর্তাদের উপর স্থানীয় দখলদারদের অনুসারীরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হামলা চালালে রেঞ্জ কর্মকর্তা ও দুইজন বনরক্ষী আহত হন। এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে।

এছাড়া স্থানীয় দখলদার সাব্বির আহমদের বিরুদ্ধে এর আগেও বিভিন্ন সময়ে জমি দখলের অভিযোগ রয়েছে।

এ ঘটনায় বনবিভাগের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।