প্রচ্ছদ > শীর্ষ সংবাদ > সুনামগঞ্জে দু’গ্রামবাসীর সংঘর্ষে নিহত ১, আহত শতাধিক, আটক ২৪

সুনামগঞ্জে দু’গ্রামবাসীর সংঘর্ষে নিহত ১, আহত শতাধিক, আটক ২৪

শীর্ষ সংবাদ সিলেট প্রতিক্ষণ সুনামগঞ্জ

সময়ের ডাক :: সুনামগঞ্জের দোয়ারায় দু’গ্রামবাসীর সংঘর্ষে এক ব্যক্তি নিহত ও শতাধিক লোক আহত হয়েছে। শনিবার সকালে দোহালিয়া ইউনিয়নের শিবপুর ও রাজনপুর গ্রামবাসীর মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষে গুরুতর আহত শিবপুর গ্রামের মাওলানা বশির উদ্দিন (৫০)কে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তিনি মারা যান। তিনি শিবপুর গ্রামের মৌলভী ছোয়াব আলীর পুত্র ও সাবেক চেয়ারম্যান ফখর উদ্দিনের ছোট ভাই।

জানা যায়, স্থানীয় বাজারের আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দু’গ্রামবাসীর মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। শুক্রবার বিকেলে দোহালিয়া বাজার থেকে ইজিবাইক নিয়ে বঙ্গবন্ধু বাজার যাচ্ছিল শিবপুর গ্রামের বাসিন্দা প্রবাসী বিল্লাল মিয়া।

ভাড়া সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে রাজনপুর গ্রামের ইজিবাইক চালক তাজ উদ্দিনের সাথে বাক-বিতন্ডা ও হাতা-হাতির ঘটনা ঘটে।

এ নিয়ে দু’গ্রামবাসীর মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে রাতেই পৃথক বৈঠক করে দু’গ্রামের লোকজন। সকালে হাক-ডাক দিয়ে উভয় গ্রামের লোকজন বঙ্গবন্ধুবাজার সংলগ্ন মাঠে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। প্রায় দু’ঘন্টা ব্যাপী সংঘর্ষে উভয় গ্রামের শতাধিক লোক আহত হয়।

সংঘর্ষে গুরুতর আহত ৩০জনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর মধ্যে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে মাওলানা বশির উদ্দিনের মৃত্যু ঘটে।

গুরুতর আহত সিরাজ মিয়া (৪৫), সাইদুর রহমান (৪০), জুনাইদ আহমদ (২৫) সাহাজ উদ্দিন (৩৫), মাছুম আহমদ (১৮), মছলন্দর আলী (৪৫), কামরুজ্জামান (২৫), ইসলাম উদ্দিন (৩৫)সহ ৩০জনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে হাসান, বাবুল, মাহমুদুল হাসান, সাবুলসহ অন্যান্য আহতদের দোয়ারা, ছাতক, কৈতক ও সুনামগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি এবং চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এ ঘটনায় জাউয়া তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ কৈতক হাসপাতাল থেকে ১৪জন ও দোয়ারা হাসপাতাল থেকে দোয়ারা থানা পুলিশ আরো ১০জনকে আটক করার খবর পাওয়া গেছে।

দোয়ারাবাজার থানার ওসি সুশিল রঞ্জন দাস জানান, সংঘর্ষের সময় সালিশকারী মাওলানা বশির উদ্দিনের মৃত্যু ঘটেছে।