বাঙালীরঅন্তরে বঙ্গবন্ধু এক চিরঞ্জীব স্বত্ত্বা

সময়ের ডাক: সিলেটের জেলাপ্রশাসকনুমেরীজামানবলেন, দেশেরসকল ক্রান্তিকালেসংস্কৃতিকর্মীরাইবাঙালীপ্রকৃত চেতনা ও বিশ্বাসকেধারণকরে দেশেরকল্যানেকাজকরে গেছেন। জাতিরজনক যে স্বপ্ন দেখতেন সেই স্বপ্নবাস্তবায়নেসাংস্কৃতিকজাগরণ মুক্তিযুদ্ধেরসময়কাল থেকে আজঅবধিআছে। তিনিবলেনএকসময় এই দেশে রাজাকারনামকশব্দউচ্চারণকরতেমানুষভয় পেতো। জাতিরজনককেনির্মমভাবেহত্যার পর দেশকে নেতৃত্ব ও মেধাশূণ্য করে দেয়ারপায়তারাচলছিলো। কিন্তু বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও চেতনা এতই দৃঢ় ছিলো যে, বাংলারমানুষসকলষড়যন্ত্র ভেদ করে সেইচেতনা ও বিশ্বাসবুকেলালনকরেএগিয়ে গেছে। তিনিআরোবলেন দেশেরনাট্যকর্মীরা স্বাধীনতারমূল্যবোধকেসমুন্নত রেখেসবসময়মানুষকে মুক্তিযুদ্ধেরপ্রকৃত ইতিহাসজানাতেসচেষ্ট থেকেছে। তিনি দেশেরবর্তমানঅগ্রযাত্রাকেআরোওসামনেনিয়ে যেতেবাঙালীরঅন্তরে বঙ্গবন্ধু এক চিরঞ্জীব স্বত্ত্বাউল্লেখ কওে তাঁরআদর্শ লালনকরেনাট্যকর্মীদেরনতুননতুনভাবনাচিন্তারমধ্য দিয়েএগিয়েযাওয়ারআহ্বানজানান।
গতকাল ১৭ আগস্ট শুক্রবারসন্ধ্যায় সম্মিলিতনাট্য পরিষদ সিলেটআয়োজিতজাতীয় শোকদিবসউপলক্ষে বঙ্গবন্ধু স্মরণে‘যেধ্রুবপদ দিয়েছবাধি’অনুষ্ঠানেপ্রধানঅতিথির বক্তব্যে জেলাপ্রশাসক উপরোক্ত কথাগুলোবলেন।
সম্মিলিতনাট্য পরিষদ সিলেটেরসভাপতিমিশফাকআহমদ চৌধুরীমিশু’রসভাপতিত্বে ও সাধারণসম্পাদকরজতকান্তি গুপ্তেরসঞ্চালনায়অনুষ্ঠানেরআলোচকছিলেন, মদনমোহনকলেজেরঅধ্যক্ষ লোকগবেষক ড. আবুলফতেহফাত্তাহ। আলোচনায় অংশ নেন সম্মিলিতনাট্য পরিষদেরপ্রধানপরিচালকঅরিন্দম দত্ত চন্দন, প্রাক্তন প্রধানপরিচালনব্যারিস্টার মোঃআরশআলী, বাংলাদেশ আবৃত্তিসমন্বয়পরিষদের কেন্দ্রিয়সহ-সভাপতি মোকাদ্দেসবাবুল, সাংবাদিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আল-আজাদ, তথ্যচিত্রনির্মাতা ও সাংস্কৃতিকসংগঠকনিরঞ্জন দে, সম্মিলিতসাংস্কৃতিক জোট এর কেন্দ্রিয়নির্বাহীসদস্য শামসুলআলম সেলিম, মহানগরআওয়ামীলীগেরসাংস্কৃতিকসম্পাদকপ্রিন্স সদরুজ্জামান প্রমূখ।
আয়োজনেরশুরুতেই ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট স্বধীনতারস্থপতি, হাজারবছরের শ্রেষ্ঠবাঙালীজাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখমুজিবুররহমানসহনির্মমভাবেনিহতপরিবারবর্গেরঅন্যান্য সদস্যদের বিদেহীআত্মারশান্তিকামনাকরে এক মিনিটনিরবতাপালনকরা হয়। আলোচনাপর্ব শেষে তথ্যচিত্রনির্মাতানিরঞ্জন দে’রপ্রামাণ্য চিত্র ‘বঙ্গবন্ধু বাংলারধ্রুবতারা’প্রদর্শীত হয়। অনুষ্ঠানেসিলেটেরসাংস্কৃতিক অঙ্গণের বিভিন্ন ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।