আরিফের বাড়ির সামনে পুলিশ, গাড়িতে তল্লাশি (ভিডিও সহ)

সময়ের ডাক: সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন থেকে বিএনপির ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী বদরুজ্জামান সেলিমের সরে দাঁড়ানোর ঘোষণার পর থেকে আরিফুল হক চৌধুরীর বাসায় সংবাদ সম্মেলনে অংশ নেয়া নেতাকর্মীদের সব গাড়িতে তল্লাশি চালিয়েছে পুলিশ।বৃহস্পতিবার (১৯ জুলাই) বেলা ৩ টায় আরিফুল হকের বাসা থেকে সংবাদ সম্মেলন শেষ করে বেরুচ্ছিলেন বিএনপির নেতাকর্মীরা। এসময় কোতয়ালি থানা ও বিমানবন্দর থানার দুই ওসি মোশাররফ হোসেন এবং গৌছুল হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশ একে একে সবগুলোতে গাড়িতে তল্লাশি চালায়। এসময় বিভিন্ন গাড়িতে বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা খন্দকার মুক্তাদির, কেন্দ্রীয় বিএনপির কার্যকরী পরিষদের সদস্য ডা. শাহরিয়ার চৌধুরী, সাবেক ছাত্রনেতা মিজানুর রহমান, মাহবুব কাদির শাহী ছিলেন। এছাড়া খালি গাড়িগুলোও বাদ পড়েনি পুলিশী তল্লাশি থেকে। এসময় আরিফুল হক বেরিয়ে এসে পুলিশের সাথে বাকবিতণ্ডায় জড়ান। এসময় তাকে বেশ উত্তেজিত হতে দেখা যায়। তবে এসময় কাউকে আটক করা হয়নি।

এর আগে বেলা আড়াইটার দিকে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরীকে সমর্থন জানিয়ে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন বদরুজ্জামান সেলিম। আরিফের বাসায় বসেই বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাদের উপস্থিতিতে তিনি এ ঘোষণা দেন।

এ সময় বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান এবং কেন্দ্রীয় সদস্য নাজিম উদ্দিন আলম, বিএনপির ভাইস চেয়াম্যান মো. শাহজাহান, বদরুজ্জামান সেলিম, বদরুজ্জামান সেলিমের মা, তাঁর সহধর্মীনি শামীমা জামান হেনা, মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী, সাবেক ছাত্র নেতা মিজানুর রহমান, মাহবুব কাদির শাহী, রেজাউল করিম নাচনসহ বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।