চুনারুঘাটে নারী শ্রমিক ধর্ষণের শিকার, আটক ১

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি :: চুনারুঘাটে প্রাণ কোম্পানীর নারী শ্রমিককে পালাক্রমে ধর্ষণ করেছে দুই লম্পট। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে শুক্রবার (১৪ জুলাই) রাত ৯টার দিকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।পুলিশ জানায়, হবিগঞ্জ সদর উপজেলার বনদক্ষিন গ্রামের এক নারী শনিবার দুপুরে মাধবপুর উপজেলার শাহজিবাজার এলাকার প্রাণ কোম্পানীর ফ্যাক্টরীতে যাওয়ার পথে সদর উপজেলার ধুলিয়াখাল থেকে দুই যুবক তাকে জোর করে একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশায় তুলে চুনারুঘাটে নিয়ে যায়। ওখানে একটি পার্কে তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।বিষয়টি হবিগঞ্জ সদর থানা পুলিশ জানতে পেরে থানার এসআই পলাশ চন্দ্র দাসের নেতৃত্বে একদল পুলিশ হাসপাতাল এলাকা থেকে বাহুবল উপজেলার বিহারীপুর গ্রামের রজব আলীর ছেলে মামুন মিয়াকে আটক করে।

 

হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক মিঠুন রায় জানান, ধর্ষণের অভিযোগে নারী শ্রমিককে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। তার প্রচুর রক্তক্ষরণ হচ্ছে। তাকে হাসপাতালে ভর্তি দিয়ে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নারী শ্রমিক সাংবাদিকদের জানান, সে প্রাণ কোম্পানীর ফ্যাক্টরীতে যাওয়ার পথে মামুনসহ দুই যুবক তাকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে চুনারুঘাট উপজেলার একটি পার্কে পালাক্রমে ধর্ষণ করে রক্তাক্ত করেছে।