মসজিদে মসজিদে দোয়া চাইলেন মেয়র প্রার্থীরা

সময়ের ডাক : সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে ঘিরে জমে উঠেছে প্রার্থীদের প্রচারণা। শুক্রবার (১৩ জুলাই) জুম্মার নামাজে গিয়ে নামাজিদের কাছে ভোট ও দোয়া চেয়েছেন। নগরীর বিভিন্ন ওয়ার্ড ঘুরে দেখা গেছে এমন চিত্র।

আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন কামরান জুমআর নামাজ আদায় করেছেন নগরীর সোবহানীঘাট শাহজালাল দারুস সুন্নাহ ইয়াকুবিয়া কামিল মাদ্রাসা মসজিদে। নামাজ আদায় শেষে স্থানীয় মুসল্লিদের সাথে কুশল বিনিময় করেন তিনি। এসময় তিনি বলেন, সিলেট সিটি করপোরেশনকে একটি ‘আধুনিক নগরী’ হিসেবে গড়ে তুলতে সিলেটের মানুষ আজ নৌকার পক্ষে ঐক্যবদ্ধ। যে দিকেই যাচ্ছি মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত হচ্ছি। জনগণের ভালোবাসার প্রতিদান দিতে আমি প্রস্তুত রয়েছি। তিনি আরো বলেন, আধ্যাত্মিক শহর সিলেটের মানুষের সঙ্গে আমার আত্মার বন্ধন রয়েছে। দীর্ঘ দিন আমি নগরের মানুষের সেবক হিসেবে কাজ করেছি। একদিনের জন্য কখনো আমি সিলেটবাসীর সঙ্গে সর্ম্পক বিচ্ছিন্ন করেনি। যতদিন আল্লাহ রাব্বুল আলামীন আমাকে জীবিত রাখবেন, আমি আজীবন সিলেটের মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখবো।

অন্যদিকে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী সদ্য সাবেক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী তার কর্মী সমর্থকদের নিয়ে দক্ষিণ সুরমার কদমতলী মসজিদে জুমআর নামাজ আদায় করেন। নামাজ শেষে মুসল্লিদের সাথে কুশল বিনিময় করে ধানের শীষে ভোট চান তিনি। এরপর স্থানীয় কর্মীদের সাথে নিয়ে দক্ষিণ সুরমার ২৬ ও ২৭ নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ করেন বিএনপির এই মেয়র প্রার্থী।

 

এসময় আরিফুল হক বলেন, সিলেট সিটি নিয়ে সরকার ষড়যন্ত্রে মেতেছে। ষড়যন্ত্র করে লাভ নেই, সিলেটবাসী আমার পক্ষে। আমি কথায় নয়, উন্নয়নে বিশ্বাসী বলেই সবার কাছে নিজের কথাগুলো বলতে ও অন্যদের কথা শুনতে এসেছি। অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে নগর উন্নয়নে রায়ের প্রতিফলন ঘটাতে চাই বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। আরিফুল হক আরো বলেন, নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতা চাই। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে বিজয় আমাদের সুনিশ্চিত। জনগণ আজ আমাদের পক্ষে রাস্তায় নেমে এসেছে।