জনগণের মুখোমুখি হলেন সিলেটের ৭ মেয়র প্রার্থী 

সময়ের ডাক :: সিলেট সিটি কর্পোরেশনের আগামী ৩০শে জুলাইর নির্বাচন উপলক্ষে সুশাসনের জন্য নাগরিক আয়োজিত ‘জনগণের মুখোমুখি’ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে মেয়র প্রার্থীরা নির্বাচিত হলে কি কি করবেন সে সম্পর্কে একটি অঙ্গীকারপত্রে স্বাক্ষর করেন। একইভাবে উপস্থিত নাগরিকরাও সঠিকভাবে সৎ ও যোগ্য প্রার্থীকে ভোট দেওয়ার শপথ করেন।সুশাসনের জন্য নাগরিক ‘সুজন’-এর আয়োজনে সকাল ১১টায় সিলেট রিকাবীবাজারস্থ মোহাম্মদ আলী জিমনেশিয়ামে সিলেট জেলা সুজনের সভাপতি ফারুক মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের আহ্বান জানিয়ে বক্তব্য রাখেন ‘সুজন’ এর প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার। অনুষ্ঠানে উপস্থিত বিপুল সংখ্যক ভোটারের মধ্যে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের তথ্যাবলী বিষয়ক প্রচারপত্র বিলি করা হয়।

‘জনগনের মুখোমুখি’ অনুষ্ঠানে মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নৌকা প্রতীকের আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী সাবেক মেয়র ও সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য ও সদ্য সাবেক সিটি মেয়র ধানের শীষ প্রতীকের আরিফুল হক চৌধুরী, নাগরিক কমিটি মনোনীত প্রার্থী সিলেট মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিম (বাসগাড়ী প্রতীক), মহানগর জামায়াতের আমির এহসানুল মাহবুব জুবায়ের (টেবিল ঘড়ি প্রতীক), ইসলামী আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সদস্য ডা. মোয়াজ্জেম হোসেন (হাতপাখা প্রতীক), সিপিবি-বাসদ মনোনীত প্রার্থী আবু জাফর (মইপ্রতীক) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী এহসানুল হক তাহের (হরিণ প্রতীক)।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত সিটি কপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদের প্রার্থীরা নির্বাচিত হলে সিলেট মহানগরের স্বচ্ছ, জবাবদিহিমূলক এবং নাগরিকবান্ধব হিসেবে গড়ে তোলার অঙ্গীকার করেন। মেয়র প্রার্থীরা তাঁদের ভবিষ্যত কর্মসূচি উপস্থিত ভোটারদের সামনে তুলে ধরেন এবং নগরবাসীর বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন। প্রার্থীরা পরাজিত হলে ফলাফল মেনে নেয়া এবং কর্পোরেশনের উন্নয়নে বিজয়ী প্রার্থীকে সহযোগিতা করাসহ স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার জন্য উদ্যোগ গ্রহণেরও প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।