বাবার স্মরণে বন্দুক পায়ে স্টার্লিং

স্পোর্টস ডেস্ক:: সপ্তাহ দুয়েক পরে পর্দা উঠবে ফুটবল বিশ্বকাপের। সেলক্ষ্যে অংশগ্রহণকারী সব দেশ গুছিয়ে নিচ্ছে নিজেদের শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতি। নিজেদের প্রস্তুতির ফাঁকে ইংলিশ মিডফিল্ডার রহিম স্টার্লিং পায়ের ট্যাটুতে চোখ আটকে যায় সবার। সেখানে দেখা যায় ‘এম১৬ অ্যাসল্ট রাইফেল’ এর ছবি ট্যাটু করে রেখেছেন স্টার্লিং।
এই ছবি ভাইরাল হওয়ার পর নানান সমালোচনা হতে থাকে ২৩ বছর বয়সী এই তারকার বিরুদ্ধে। এমনকি তাকে জঙ্গি বলতেও ছাড়েনি সুশীল সমাজের নাগরিকেরা। কিন্তু স্টার্লিংয়ের এমন করার পেছনে আছে খুবই আবেগতাড়িত একটি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইন্সটাগ্রামে সেই কারণ জানান তিনি।

নিজের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে স্টার্লিং লিখেন, ‘আমার যখন ২ বছর বয়স তখন আমার বাবা বন্দুকের গুলিতে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান। তারপর থেকেই আমি প্রতিজ্ঞা করেছি কোনদিন বন্দুক ছুঁবো না। আমি আমার ডান পায়ে দিয়ে ফুটবলে শ্যুট করি। তাই ডান পায়ে আঁকা এই ট্যাটু বিশেষ অর্থও বহন করে।’
বিশ্বকাপের মূল পর্ব শুরুর আগে আগামী ২ এবং ৭ জুন ২টি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে ইংল্যান্ড। মূল পর্বে ‘জি’ গ্রুপে ইংল্যান্ডের ৩ প্রতিপক্ষ বেলজিয়াম, পানামা এবং তিউনিশিয়া। ১৮ জুন তিউনিশিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে তাদের বিশ্বকাপ মিশন। পরে ২৪ এবং ২৮ জুন পানামা এবং বেলজিয়ামের মুখোমুখি হবে ১৯৬৬ সালের বিশ্বকাপজয়ীরা।