ফেঞ্চুগঞ্জে ইউপি সদস্যদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

ফেঞ্চুগঞ্জ প্রতিনিধি :: সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে নব নির্বাচিত ইউপি সদস্যদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদ ও ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন উপজেলা উত্তর ফেঞ্চুগঞ্জ ইউনিয়নের নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য সুবল বিশ্বাস ও উপজেলার গয়াসি গ্রামবাসী।

বৃহস্পতিবার (১৭ মে) দুপুরে ফেঞ্চুগঞ্জ প্রেসক্লাব হলরুমে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যপাঠ করেন ইউপি সদস্য সুবল বিশ্বাস।

লিখিত বক্তব্যে সুবল বিশ্বাস বলেন, আমি বিগত ইউপি নির্বাচনে সদস্যপদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অংশ নিলে শুরু থেকেই গয়াসি গ্রামের ধীরেন্দ্র বিশ্বাসের পুত্র সাংবাদিক পরিচয়দানকারী নিশি বিশ্বাস আমার বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়। নির্বাচনকালীন সময় সাংবাদিক নামধারী নিশি বিশ্বাস আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপ-প্রচার ও কুৎসা রটাতে থাকে। বিষয়টি অবগত হওয়ার পর এ বিষয়ে নিশি বিশ্বাসকে জিজ্ঞেস করা হলে নিশি বিশ্বাস আমার কাছে পঞ্চাশ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। নিশি বিশ্বাসের চাঁদা দাবির বিষয়টি আমার গ্রামের অনেক বাসিন্দারা অবগত আছেন।

তিনি বলেন, নিশি বিশ্বাস আমার ভাবমূর্তি নষ্ট করার উদ্দেশ্যে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যাচার অব্যাহত রেখেছে
গত ১৪ মে ফেইসবুক আইডি একটি অনলাইন পত্রিকায় আমার বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করে আমি না কি সমাজ বিরোধী, মাদক ব্যবসায়ী। আমি নিশি বিশ্বাসকে লাঞ্ছিত করেছি এবং নিশি বিশ্বাসের স্কুল পড়ুয়া সন্তানকে তুলে নিয়ে হত্যার হুমকি দিয়েছি। আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন।

আমি যদি সমাজ বিরোধী মাদক ব্যবসায়ী হতাম তাহলে আমার এলাকার জনগণ আমাকে তাদের মহামূল্যবান ভোট দিয়ে মেম্বার নির্বাচিত করতো না।

তিনি বলেন, সাংবাদিক নামধারী নিশি বিশ্বাস সম্বন্ধে এলাকার মানুষ ওয়াকিবহাল রয়েছেন। নিশি বিশ্বাসের যন্ত্রণায় গ্রামের মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন। সংখ্যালঘু গয়াসি গ্রামের সহজ সরল মানুষকে ভয়ভীতি দেখিয়ে টু-পাইস কামানো তার একমাত্র কাজ।
তার অপকর্মের কারণে মানুষ সব সময় আতংকে থাকেন। নিশি বিশ্বাসের দৃশ্যমান কোন ব্যবসা বাণিজ্যের সাথে জড়িত নয়। দৃশ্যমান কোন কাজ না করলেও নিশি বিশ্বাস রাজার হালে দিনযাপন করছেন। গ্রামের অনেক মানুষের অভিযোগ, নিশি বিশ্বাসের বাড়িতে রাত বিরাতে অনেক অপরিচিত লোকজন আসা যাওয়া করেন। গ্রামের অনেকের ধারণা- নিশি বিশ্বাস কোন অপরাধী চক্রের সাথে জড়িত আছেন। এই চক্রের সদস্যরা তার বাড়িতে রাতে আসা যাওয়া করে।

অতীতে এই নিশি বিশ্বাসের নানা অপকর্মের কারণে গয়াসি গ্রামবাসী নিশি বিশ্বাসের পরিবারকে সমাজচ্যুত করেছিলো। নিশি বিশ্বাস আমার ক্ষতিসাধনের উদ্দেশে আমার বিরুদ্ধে ফেঞ্চুগঞ্জ থানায় মিথ্যা অভিযোগ এনে থানায় জিডি করেছে। ইউপি সদস্য সুবল বিশ্বাস সিলেটের পুলিশ সুপারের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, সঠিক তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত সত্য উদঘাটন করে প্রকৃত দোষীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি জানাই।