তারেককে ফেরত চেয়ে যুক্তরাজ্যকে একাধিক চিঠি

সময়ের ডাক ডেস্ক:: বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ফিরিয়ে আনতে যুক্তরাজ্যেকে একাধিকবার চিঠি দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।
বৃহস্পতিবার সকালে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ওআইসির ৪৫ তম পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক উপলক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান মন্ত্রী। আগামী ৫ মে ঢাকায় দুইদিনব্যাপী এ সম্মেলন শুরু হবে।মাহমুদ আলী বলেন, তারেক রহমানের বিষয়ে একাধিক যুক্তরাজ্যের হোম অফিসে একাধিক চিঠি লেখা হয়েছে। আরও লেখা হবে। এটি একটি চলমান প্রক্রিয়া। যুক্তরাজ্য সরকারের উত্তর পেলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
সম্প্রতি যুক্তরাজ্য সফরে গিয়ে ১৭ ও ২১ মে তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে এনে আদালতের ‍মুখোমুখি করার কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর দেশে ফিরে দলীয় নেতাদেরকে এবং সবশেষ বুধবারের সংবাদ সম্মেলনেও বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।
সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে ২০০৭ সালের শুরুর দিকে গ্রেপ্তার তারেক রহমান পরের বছরের শেষ দিকে প্যারোলে মুক্তি পেয়ে চিকিৎসার জন্য যুক্তরাজ্য যান। জামিনের মেয়াদ শেষ হলেও তিনি দেশে ফেরেননি।
এর মধ্যে বিদেশে অর্থপাচার এবং জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় তারেক রহমানের মোট ১৭ বছরের কারাদণ্ড এবং ২২ কোটি টাকারও বেশি জরিমানা হয়েছে।
আর গত ৮ ফেব্রুয়ারি পাঁচ বছরের কারাদণ্ড পেয়ে খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ার পর তারেক রহমানকে করা হয়েছে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন।
এর মধ্যে জানা গেছে তারেক রহমান যুক্তরাজ্যে রাজনৈতিক আশ্রয় নিয়েছেন। আর ২০১৪ সালের ২ জুন তিনি বাংলাদেশের পাসপোর্ট সে দেশে ফিরিয়েও দিয়েছেন।
বিএনপি নেতা ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার আসামি এবং তার মৃত্যুদণ্ডও চেয়েছে রাষ্ট্রপক্ষ। চলতি বছরই এই মামলার রায় ঘোষণা হতে পারে বল ধারণা করা হচ্ছে।